কাজে আসছে না সেতু

পাকুন্দিয়া (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি / ১১:৪৯ পূর্বাহ্ণ, মে ২৩,২০২০

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়া উপজেলায় রাস্তা নেই তবু লাখ লাখ টাকা ব্যয় করে নির্মাণ করা হয়েছে সেতু। উপজেলার নারান্দী ইউনিয়ন ঈদগা মাঠ সংলগ্নে পাটুয়াভাঙ্গা এবং নারান্দী ইউনিয়নে মধ্যবর্তী সিংগুয়া নদী উপর কয়েক বছর আগে সেতু তৈরি করা হলেও জনগণের কোনো কাজে আসছে না। কারণ রাস্তা তৈরি না করেই সেতুটি নির্মাণ করায় এক পায়ে দাঁড়িয়ে আছে। সেতুর দুই দিকে নদী একদিকে ডোবা এবং অন্যদিকে নিচু ফসলি জমি, নেই কোনো রাস্তা, মাটি ভরাট না করায় সেতুতে উঠার মতো কোনো পরিস্থিতি নেই।

সেতুর দুই পাশে মাটি ভরাট ও রাস্তা তৈরি করে জনগণের চলার উপযোগী করে তোলা হলে দুই ইউনিয়নের মানুষের উপকার হত। এখানে দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে ঈদগাহের নামাজি ও এলাকার লোকজন। পাকুন্দিয়া উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস কর্তৃক সেতুটি নির্মাণ করা হয়।

স্থানীয় একাধিক লোকজনের সঙ্গে কথা বললে তারা অভিযোগ করে বলেন, সরকারি কোনো রাস্তা নেই স্থানীয়ভাবে নামমাত্র মূল্যে জমি খরিদ করা হয়েছে। যেখানে রাস্তা আগে করার দরকার ছিল সেখানে সেতু নির্মাণ করা হয়েছে। সেতুর গোড়ায় দুই পাশে এখনও কোনো মাটি ভরাট হয়নি। ফলে বর্তমানে সেতুটি কোনো কাজে আসছে না। যদি একটি রাস্তা হয় তাহলে দুই ইউনিয়নের মানুষের উপকার হত।

নারান্দী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম বলেন, ঈদগাহের পাশে সিংগুয়া নদীর উপরে সেতুর দুই পাশে সংযোগ সড়ক হলে দুই ইউনিয়নের মানুষ উপকৃত হত। তাই গত মাসে উপজেলায় মাসিক মিটিংয়ে পাটুয়াভাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের সাহাবউদ্দিনের দৃষ্টি আকর্ষণ করে কথা বলেছি। যদি যৌথভাবে রাস্তা হয় তাহলে দুই ইউনিয়নের জনগণ উপকৃত হবে।

এ বিষয়ে জানতে উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা রওশন করিম বলেন, এখন আমাদের হাতে এ ধরনের কোনো বরাদ্দ নেই। পরবর্তীতে যদি কোনো বরাদ্দ আসে তাহলে গুরুত্বের সঙ্গে দেখব।

সম্পাদক ও প্রকাশক : আহসান হাবীব
উপদেষ্টা সম্পাদক : মোশতাক আহমেদ রুহী

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : বসতি হরাইজন, ১৭-বি, বাড়ি-২১, সড়ক-১৭, বনানী, ঢাকা
ফোন : বার্তা-৯৮২২০৩২, ৯৮২২০৩৭, মফস্বল-৯৮২২০৩৬
বিজ্ঞাপন-৯৮২২০২১, ০১৭৮৭ ৬৯৭ ৮২৩,
সার্কুলেশন-৯৮২২০২৯, ০১৮৫৩ ৩২৮ ৫১০
Email: kholakagojnews7@gmail.com
            kholakagojadvt@gmail.com