ফের অল্পের জন্য রক্ষা পেল পৃথিবী!

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক / ১২:১৫ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১৮,২০২০

একদম কান ঘেঁষে বেরিয়ে গিয়েছে একটি বিশাল উল্কাখণ্ড। ফলে আবারও একটুর জন্য রক্ষা পেল পৃথিবী। বার বার উল্কাখণ্ড ধেয়ে এলেও শুধুমাত্র ভাগ্যের জোরে বেঁচে যাচ্ছে পৃথিবী।

নাসার একটি প্রতিবেদনে জানা যায়, শনিবার সকালে পৃথিবীর সঙ্গে একটি বিশাল উল্কাখণ্ডের সংঘর্ষ হয়েও হয়নি। এমনটাই জানিয়েছে নাসা।

এ ব্যাপারে নাসার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, পৃথিবী থেকে ৫.৭৭ মিলিয়ন কিলোমিটার দূর থেকে চলে গিয়েছে ওই গ্রহাণুটি। ফলে বিপদ হয়নি।

এদিকে মহাকাশ বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, এই গ্রহাণু আকারে যে কোনও ইমারতের থেকে বিশাল বড়। এই ‘ক্ষতিকারক’ গ্রহাণু পৃথিবীর স্থলভাগে আঘাত হানলে পুরো একটা মহাদেশ ধ্বংস হওয়ার শঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন বিজ্ঞানীরা। এটি চওড়ায় ছিল ১ কিলোমিটার। ঘণ্টায় গতিবেগ ছিল ৫৪,৭১৭ কিলোমিটার।

বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, মধ্যাকর্ষণ শক্তির জেরে বার বার পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে উল্কাখণ্ড। তবে পৃথিবীর ভাগ্যটা এতই ভালো যে, বার বার ধেয়ে এলেও বেঁচে যাচ্ছে এই নীল গ্রহ। কিন্তু সেই ভাগ্য কতবার সহায় হবে, তা বলা মুশকিল।

বিজ্ঞানীরা আরো জানিয়েছেন, এই সুবিশাল উল্কাপিণ্ডের সঙ্গে যদি পৃথিবীর সংঘর্ষ হতো তাহলে অচিরেই ধ্বংস হয়ে যেত মানবজাতি। পৃথিবীর নানা প্রান্তে শুরু হয়ে যেত সুনামি, ভূমিকম্প, তীব্র ঝড়। সূর্যের চারপাশে এমন ছোট বড় নানা উল্কাপিণ্ড ঘুরতে থাকে। সেগুলোরই কোনোটা কখনা কখনো মাধ্যাকর্ষণ শক্তির জেরে গ্রহের কাছাকাছি চলে আসে। তবে এ যাত্রায়ও বড়সর বিপদ থেকে রক্ষা পেল আমাদের এই নীল গ্রহ। তবে পুরোপুরি রক্ষা পেল কিনা সে বিষয়ে সন্দেহ রয়েছে এখনো।

কারণ বর্তমানে চাঁদ ও পৃথিবার মাঝখানেই অবস্থান করছে উল্কাখণ্ডটি। ফলে পৃথিবার জন্য এখনো যে বিপদঘণ্টা বাজছে, তা বলাই বাহুল্য।
এনডিটিভি

সম্পাদক ও প্রকাশক : আহসান হাবীব
উপদেষ্টা সম্পাদক : মোশতাক আহমেদ রুহী

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : বসতি হরাইজন, ১৭-বি, বাড়ি-২১, সড়ক-১৭, বনানী, ঢাকা
ফোন : বার্তা-৯৮২২০৩২, ৯৮২২০৩৭, মফস্বল-৯৮২২০৩৬
বিজ্ঞাপন-৯৮২২০২১, ০১৭৮৭ ৬৯৭ ৮২৩,
সার্কুলেশন-৯৮২২০২৯, ০১৮৫৩ ৩২৮ ৫১০
Email: kholakagojnews7@gmail.com
            kholakagojadvt@gmail.com