কৃষিনির্ভর সালথার অর্থনীতি

সালথা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি / ৪:১০ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৪,২০১৯

ফরিদপুরের সালথা উপজেলার মানুষের অর্থনীতির প্রধান চালিকা শক্তি হচ্ছে কৃষি। এই এলাকার মানুষ একমাত্র কৃষির ওপর নির্ভরশীল। বিভিন্ন মৌসুমে হরেক রকম ফসলের চাষাবাদ হয়ে থাকে এ উপজেলায়। সারা দেশের মধ্যে পাট ও পেঁয়াজের জন্য বিখ্যাত এ অঞ্চলটি। ব্যবসা বাণিজ্য, চাকরি ও অন্য পেশার সঙ্গে সংযুক্ত রয়েছে কৃষি। কৃষির আয় ছাড়া এখানে দু-মুঠো ডাল-ভাত খেয়ে বেঁচে থাকা দুস্কর।

উপজেলার জগন্নাথদি গ্রামের কৃষক সুশান্ত রায় এ প্রতিবেদককে বলেন, আমাদের দু-মুঠো ডাল-ভাত খেয়ে বেঁচে থাকার একমাত্র অবলম্বন হচ্ছে কৃষি কাজ। তাই এ বছরে এক বিঘা জমিতে পেঁয়াজ, ১০ কাঠা জমিতে গম, ১০ কাঠা মুসরি ও দুই কাঠা কালোজিরার চাষ করার প্রস্ততি নিয়েছি।

মাঝারদিয়া ইউপি পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও ধনী কৃষক আফছার উদ্দীন মাতুব্বার বলেন, এবার ৪০/৪৫ বিঘা জমিতে পেঁয়াজ ও পাঁচ বিঘা জমিতে গম চাষ করবো। প্রতিবছর জমিতে বিভিন্ন রকমের চাষাবাদ করে থাকি। জমির ফসল দিয়েই সংসার চালাতে হয়।

উপজেলার বিভিন্ন এলাকার কৃষকদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, গত বছরে সৃজনে পেঁয়াজের মূল্য সঠিক থাকায় এবার উপজেলার আটটি ইউনিয়নের প্রতিটি গ্রামে কৃষকরা অন্য ফসলের চেয়ে পেঁয়াজের আবাদ বেশি করার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে।

বর্তমানে পেঁয়াজের চারা বপনের কাজ চলছে। কিছুদিন পরেই পেঁয়াজের চারা জমিতে লাগানো হবে। পাশাপাশি অন্য ফসলে বপনের কাজ শুরু হয়েছে। সেক্ষেত্রে কৃষি অফিসের নির্দেশ মোতাবেক সময়মতো সার-কীটনাশক প্রয়োগ ও সেচ দিতে হবে।

এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি অফিসার মোহাম্মাদ বিন ইয়ামিন বলেন, এই উপজেলার মানুষ কৃষির ওপর নির্ভরশীল। এ বছরে অন্য ফসলের পাশাপাশি পেঁয়াজ চাষ করার যাবতীয় প্রস্তুতি নিচ্ছে কৃষকরা। সে জন্য পেঁয়াজ চাষীদের যাবতীয় পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে বলে জানান তিনি।

সম্পাদক ও প্রকাশক : আহসান হাবীব

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : বসতি হরাইজন, ১৭-বি, বাড়ি-২১, সড়ক-১৭, বনানী, ঢাকা
ফোন : বার্তা-৯৮২২০৩২, ৯৮২২০৩৭, মফস্বল-৯৮২২০৩৬
বিজ্ঞাপন-৯৮২২০২১, ০১৭৮৭ ৬৯৭ ৮২৩,
সার্কুলেশন-৯৮২২০২৯, ০১৮৫৩ ৩২৮ ৫১০
Email: kholakagojnews7@gmail.com
            kholakagojadvt@gmail.com