প্রিয়জনকে কীভাবে বলব, ভালোবাসি!

শাইখ আতীক উল্লাহ / ১০:২৭ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ০৮,২০১৯

পাঠকের প্রশ্নের জবাব দিয়েছেন শাইখ আতীক উল্লাহ

চারপাশে প্রিয় মানুষের উপস্থিতি থাকলে, নিশ্চিন্তে কাজ করা যায়। ঘরে-বাইরে সব জায়গায় পরিবেশটা অনুকূল হলে সময়-শ্রম-মেধার অপচয় রোধ করা যায়। অহেতুক ঝামেলা বাঁধে না।

নবীজি (সা.) চাইতেন সমাজে ভ্রাতৃত্বপূর্ণ পরিবেশ বজায় থাকুক। সবার মধ্যে মিলমিশ থাকুক। সৌহার্দ্য-সম্প্রীতি অটুট থাকুক। নবীজি বারবার বলতেন, একজন আরেকজনকে আল্লাহর জন্যে ভালোবাসতে।

নবীজি (সা.) বলেন, সাত প্রকারের মানুষকে আল্লাহতায়ালা কেয়ামতের দিন ছায়াদান করবেন। দুজন ব্যক্তি, আল্লাহর জন্য একে অপরকে ভালোবাসে, আল্লাহর ভালোবাসার খাতিরে দুজনে একত্রিত হয়। আল্লাহর ভালোবাসার তাগিদেই দুজনে বিচ্ছিন্ন হয় (বুখারী ৬২৯)।

নবীজি শুধু এটুকুতেই শেষ করেননি, তিনি সামাজিক সৌহার্দ্য ‘কার্যক্রম’ কীভাবে বাস্তবায়িত হবে, তার চমৎকার রূপরেখাও বাতলে গেছেন। প্রিয় নবীজির প্রধান একটা বৈশিষ্ট্য- তিনি ‘তত্ত্ব’ প্রকাশ করেই দায়িত্ব শেষ করতেন না। তত্ত্বের প্রায়োগিক দিকটাতেও সযত্ন নজর রাখতেন। নিজেই করে দেখাতেন। দৃষ্টান্ত স্থাপন করতেন। ভাইয়ে-ভাইয়ের মাঝে কীভাবে ভালোবাসার বন্ধন তৈরি হবে?

কোনও ভাইকে ভালো লাগলে, তাকে জানিয়ে দেওয়া- আমি আপনাকে ভালোবাসি! (আবু দাউদ)। লজ্জার কিছু নেই। সংকোচ কীসের। তাকে আমার ভালো লাগে। এই ভালোলাগাটা আল্লাহরই জন্য। তাহলে এটা ইবাদত। এটা সুন্নত। আবার তাকে ভালোবাসার কথা বলাও সুন্নত। সুন্নত আদায়ে পিছিয়ে থাকব কেন? জড়সড় হব কেন? পিছিয়ে থাকব কেন?

এক সাহাবি নবীজির দরবারে বসা ছিলেন। পাশ দিয়ে আরেক সাহাবি হেঁটে গেলেন। উপবিষ্ট সাহাবি বললেন, ইয়া রাসুলাল্লাহ! আমি মানুষটাকে ভালোবাসি!
-তুমি তাকে ভালোবাসার কথা জানিয়েছ?
-জি না!
-যাও, তাকে (ভালোবাসা) জানিয়ে আসো!
সাহাবিটি দৌড়ে গেলেন। তার পছন্দের মানুষটিকে গিয়ে ধরলেন। হাঁপাতে হাঁপাতে বললেন, আমি আপনাকে আল্লাহর জন্য ভালোবাসি!

সম্পাদক : ড. কাজল রশীদ শাহীন
প্রকাশক : মো. আহসান হাবীব

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : বসতি হরাইজন, ১৭-১৮-বি, বাড়ি-২১, সড়ক-১৭, বনানী, ঢাকা
ফোন : বার্তা-৯৮২২০৩২, ৯৮২২০৩৭, মফস্বল-৯৮২২০৩৬
বিজ্ঞাপন-৯৮২২০২১, ০১৭৮৭ ৬৯৭ ৮২৩,
সার্কুলেশন-৯৮২২০২৯, ০১৮৫৩ ৩২৮ ৫১০
Email: editorkholakagoj@gmail.com
            kholakagojnews7@gmail.com