সুদের ঋণে ব্যবসা কি হালাল?

খোলা কাগজ ডেস্ক / ১০:০৮ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২০,২০১৯

প্রশ্নটি করেছেন সুজন মাহমুদ, মেলান্দহ, জামালপুর থেকে

কেউ যদি ব্যাংক থেকে সুদে ঋণ নিয়ে হালাল ব্যবসা করে এবং ব্যবসার আয় থেকে ব্যাংকের ঋণ (সুদসহ) পরিশোধ করে, তাহলে কি তার আয় হালাল হবে? 

আয় হালাল হবে, তবে তার সুদ দেওয়ার জঘন্যতম গোনাহ হবে। হাদিস শরিফে আছে- সুদ দেওয়া ও নেওয়া উভয়ই সমান অপরাধ। সুদি মুআমালায় সম্পৃক্ত হওয়া আল্লাহতাআলার সঙ্গে যুদ্ধ করার শামিল। সুদ এমন একটি ভয়াবহ গোনাহ, যার ভয়াবহতা আল্লাহ তাআলা এভাবে বর্ণনা করেছেন- সুদের ভয়াবহতা জানার পরও যদি তোমরা ছেড়ে না দাও, তবে আল্লাহ ও তার রাসুলের সঙ্গে যুদ্ধ করতে প্রস্তুত হও। (সুরা বাকারাহ-২৭৯)।

কত বড় মারাত্মক কথা, আল্লাহতাআলা খালেক হয়ে সামান্য মাখলুকের বিরুদ্ধে যুদ্ধের ঘোষণা দিচ্ছেন। পুরো কোরআন শরিফে মাত্র একটি জায়গায় আল্লাহতাআলা যুদ্ধের ঘোষণা দিয়েছেন। এখানে মূলত যুদ্ধ ঘোষণা উদ্দেশ্য নয়, বরং সুদের ভয়াবহতা বর্ণনা করা উদ্দেশ্য।

অনুরূপভাবে হাদিসে যে সুদ নেয় ও দেয় উভয়ের ওপর লানত এসেছে। কাজেই কোনো মুমিন কখনো আল্লাহতাআলার সঙ্গে যুদ্ধ করতে সুদ নিতে পারে না, দিতেও পারে না।

এ যুদ্ধের ফলে দেখা যায় সুদদাতা ও গ্রহীতা উভয়েই আখেরে চূড়ান্ত পর্যায়ে অবর্ণনীয় ধসের সম্মুখীন হয়। কারও বাহ্যিকতায় খুব লাভবান মনে হলেও তা খুবই সাময়িক এবং খোঁজ নিলে তার ব্যক্তি বা পারিবারিক পর্যায়ে এমন সব দুঃখ-দুর্দশার কথা জানা যায়, যা তার অর্থোপার্জনের সকল সুখকে হারাম করে দেয়। সুখের জন্যই অবৈধ উপায়ে যে অর্থ উপার্জন, তা-ই হয়ে ওঠে জীবনের অনর্থ ও দুর্দশার মূল। তাই সুদে ঋণ দেওয়া বা একটু বড় ব্যবসার জন্য সুদে ঋণ গ্রহণ করা– উভয় কাজ থেকেই সকলেরই বিরত থাকা একান্ত কর্তব্য।

সম্পাদক ও প্রকাশক : আহসান হাবীব
উপদেষ্টা সম্পাদক : মোশতাক আহমেদ রুহী

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : বসতি হরাইজন, ১৭-বি, বাড়ি-২১, সড়ক-১৭, বনানী, ঢাকা
ফোন : বার্তা-৯৮২২০৩২, ৯৮২২০৩৭, মফস্বল-৯৮২২০৩৬
বিজ্ঞাপন-৯৮২২০২১, ০১৭৮৭ ৬৯৭ ৮২৩,
সার্কুলেশন-৯৮২২০২৯, ০১৮৫৩ ৩২৮ ৫১০
Email: kholakagojnews7@gmail.com
            kholakagojadvt@gmail.com