বন্যা পরিস্থিতির অবনতি

সম্পাদকীয় / ৯:৪৪ অপরাহ্ণ, জুলাই ২১,২০১৯

এশিয়াজুড়ে বন্যা পরিস্থিতির চিত্র করুণ। সাম্প্রতিক বন্যায় ভারত-চীনে অনেক প্রাণহানি ঘটেছে। এখন উজানের সেই ঢল বাংলাদেশের ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। ফলে দেশেও দেখা দিয়েছে বন্যা। গত কয়েক দিনেই দেশের অনেক জেলা তলিয়ে গেছে। এরই মধ্যে রাস্তা-ঘাট, ঘরবাড়ি, ফসলি জমি, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পানির নিচে। উত্তরবঙ্গেও দেখা গেছে ভয়াবহ বন্যা। সামনের দিনগুলোতে এর আরও অবনতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এখন সরকারি তহবিল, বেসরকারি সংস্থাগুলো থেকে বানভাসি মানুষের জন্য ত্রাণ সহায়তা প্রয়োজন। বন্যা পরিস্থিতি যত খারাপই হোক ভুক্তভোগী প্রত্যেকের পাশে থাকতে হবে সরকারকে।

দেশের কিছু জায়গায় বন্যার ভয়াবহতা কমলেও অনেক জায়গায় পরিস্থিতি মারাত্মক রূপ নিয়েছে। অনেক অঞ্চলের নদীর পানি বিপদসীমা ছাড়িয়ে গেছে। এরই মধ্যে পদ্মা, যমুনা, মেঘনাসহ বড় নদীগুলোতে পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় আশপাশের জেলাগুলোও বন্যাকবলিত হচ্ছে। খুব অল্প সময়ের মধ্যে বন্যা পরিস্থিতির এত অবনতি হওয়ায় চরাঞ্চলসহ নদী তীরবর্তী এলাকাগুলো ডুবে গেছে। ফলে মানবেতর জীবন যাপন করছে সেসব অঞ্চলের বাসিন্দারা। এখন সময়মতো তাদের হাতে ত্রাণ সহায়তা পৌঁছালেই বিপদ থেকে রক্ষা পাবে তারা।

গত কয়েক দিনের বন্যায় দেশের লাখ লাখ মানুষের আয়ের পথ বন্ধ হয়ে গেছে। যে কারণে তারা সরকার প্রদত্ত ত্রাণসহায়তার অপেক্ষায় রয়েছে। সরকারও সে প্রস্তুতি নিয়েছে শক্তভাবেই। কিন্তু অতিদ্রুত পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় অনেক স্থানেই এখনো ত্রাণ পৌঁছানো সম্ভব হয়নি। তারাও অপেক্ষায় কষ্টে দিনাতিপাত করছে। বানভাসি মানুষকে রক্ষা করা রাষ্ট্র তথা সরকারের নৈতিক দায়িত্ব। এখন যথাসময়ে তাদের হাতে সহায়তা পৌঁছানোই মুখ্য ব্যাপার। আর এ বিষয়ে এগিয়ে আসতে হবে স্থানীয় প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট এলাকার জনপ্রতিনিধিদের। তারা সহায়তার দৃষ্টি বাড়ালেই রক্ষা পাবে বন্যাদুর্গতরা।

আমরা বলতে চাই, সাময়িক বন্যা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে সরকারকেই প্রধান ভূমিকা পালন করতে হবে। সরকারও বিষয়টি নিয়ে অনেক তৎপর। আপৎকালীন এই দুর্যোগ মোকাবেলা করতে দেরি না করে অতিদ্রুত বন্যাদুর্গতদের কাছে পর্যাপ্ত ত্রাণ পৌঁছাতে হবে এবং এতে কোনো প্রকার বিলম্ব হবে অনাকাক্সিক্ষত। দেশের মানুষ সরকারের ওপর ভরসা রাখে। তাই না খেয়ে থাকা মানুষগুলোর দেখভাল সরকারকেই করতে হবে।

সম্পাদক : ড. কাজল রশীদ শাহীন
প্রকাশক : মো. আহসান হাবীব

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : বসতি হরাইজন, ১৭-১৮-বি, বাড়ি-২১, সড়ক-১৭, বনানী, ঢাকা
ফোন : বার্তা-৯৮২২০৩২, ৯৮২২০৩৭, মফস্বল-৯৮২২০৩৬
বিজ্ঞাপন-৯৮২২০২১, ০১৭৮৭ ৬৯৭ ৮২৩,
সার্কুলেশন-৯৮২২০২৯, ০১৮৫৩ ৩২৮ ৫১০
Email: editorkholakagoj@gmail.com
            kholakagojnews7@gmail.com