ঢাকা, বুধবার, ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ | ১৮ মাঘ ১৪২৯

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

৭ মাস ধরে ব্রুনাইর হাসপাতালে পড়ে আছে শিপনের লাশ

গিয়াস উদ্দিন মিয়া, গৌরনদী (বরিশাল)
🕐 ৮:২৮ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২০, ২০২২

৭ মাস ধরে ব্রুনাইর হাসপাতালে পড়ে আছে শিপনের লাশ

পরিবারের স্বচ্ছলতা ফিরিয়ে আনতে দুই বছর আগে ব্রুনাইতে পারি জমিয়েছিলেন বরিশালের গৌরনদী উপজেলার শাহজিরা গ্রামের মৃত জয়নাল হাওলাদারের ছেলে শিপন হাওলাদার (৪৪)। কিন্তু বিধি বাম। ৬ মাস ২০ দিন আগে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ব্রুনাই’র একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। সেখানে লাশ হয়ে পড়ে আছেন প্রবাসী শিপন। পরিবারের সামর্থ না থাকায় ব্রুনাই থেকে লাশও দেশে আনতে পারছেন না তার পরিবার।

শিপন হাওলাদারের স্ত্রী খোরশেদা বেগম(৩৫) জানান, পরিবারের অভাব-অনাটন দুর করতে এনজিও এবং স্থানীয়দের কাছ থেকে ঋণ নিয়ে আড়াই বছর আগে ব্রুনাইতে গিয়েছিলেন শিপন। সেখানে তিনি ঘাস কাটার কাজ করতেন। গত জানুয়ারী মাসের মাঝামাঝি সময় কাজে গিয়ে হঠাৎ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি অসুস্থ হয়ে পরলে ব্রুনাইর রিফাজ হাসপাতালে তাকে ভর্তি করা হয়।

তার চিকিৎসার জন্য পূনরায় ঋণ করে শিপন হাওলাদারের ভাগ্নে ব্রুনাই প্রবাসী লালনের কাছে বাংলাদেশ থেকে দেড় লাখ টাকা প্রেরণ করা হয়। গত ৩০ জানুয়ারি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় শিপন। গত সাড়ে ৬ মাস ২০ দিন যাবত ব্রুনাইর রিফাজ হাসপাতালে তার লাশ পড়ে থাকলেও সামর্থ না থাকায় আনতে পারছেনা তার পরিবার।

প্রবাসীর স্ত্রী খোরশেদা বেগম আরও জানান, ২ মাস আগে তিনি স্বামীর লাশ আনার জন্য ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের মহাপরিচালকের কাছে লিখিত আবেদন করেন। আবেদন পাওয়ার পর সেখান থেকে তাকে মোবাইলে জানানো হয় ব্রুনাইতে অবস্থিত বাংলাদেশ দুতাবাসকে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে। কিন্তু এর পরে তাকে আর কোন কিছু জানানো হয়নি। তাই তিনি হতাশায় ভুগছেন।

নিহত শিপনের মরদেহ শেষ বারের মতো দেখতে এবং তার জন্মভূমিতে দাফন করতে জাতির পিতার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও মন্ত্রী আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ এমপিসহ প্রবাসী কল্যান ব্যুরোর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন অসহায় পরিবারটি।

 
Electronic Paper