ঢাকা, বুধবার, ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ | ১৮ মাঘ ১৪২৯

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রস্তুতি

ফাতেমা বেগম
🕐 ২:৩৯ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ০৭, ২০২২

পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রস্তুতি

ভূমিকা : পরিবেশের ভারসাম্য ও মানুষের অস্তিত্ব রক্ষায় বৃক্ষের প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম। বাংলাদেশের জনসংখ্যা বৃদ্ধির ফলে এর বনগুলো দ্রুত উজাড় হচ্ছে। সমূহ বিপদ থেকে দেশকে উদ্ধার করতে হলে এ দেশের বনজ সম্পদ বাড়াতে হবে। লাগাতে হবে প্রচুর বৃক্ষ। সবুজে সবুজে ছেয়ে দিতে হবে এ দেশকে। এর জন্য চাই অভিযান। নানা জাতের বৃক্ষরোপণ করে দেশে সবুজ বিপ্লব আনাই হচ্ছে বৃক্ষরোপণ অভিযান।

 

বাংলাদেশের বর্তমান অবস্থা : কোনো দেশের পরিবেশের ভারসাম্য বজায় রাখার জন্য প্রয়োজন এক-চতুর্থাংশ বনভূমি। কিন্তু বাংলাদেশের বনভূমির পরিমাণ মাত্র ১৭ শতাংশ। এ দেশের ভৌগোলিক আয়তনের তুলনায় এই বনভূমির পরিমাণ নিতান্তই অপ্রতুল।

সময় : বৃক্ষরোপণের সবচেয়ে উপযুক্ত সময় জুন-জুলাই মাস। এ সময় স্বল্প অথবা নামমাত্র মূল্যে বিভিন্ন গাছের চারা পাওয়া যায়।

এ সময় গাছ লাগালে মরে যাওয়ার আশঙ্কা কম থাকে। আবহাওয়া ও পারিপার্শ্বিক অবস্থা ভালো হওয়ার কারণে এ সময়েই দেশের সর্বত্র, অনাবাদি জায়গায়, বাঁধের ওপর, রাস্তার দুই পাশে, স্কুল-কলেজের আঙিনায়, অফিস-আদালতের সামনে এবং বাড়িঘরের আশপাশে গাছ লাগাতে হয়।

জীবন ও পরিবেশ রক্ষায় বৃক্ষের ভূমিকা : দেশের আবহাওয়া ও জলবায়ুকে নিয়ন্ত্রণ করার জন্য বৃক্ষের প্রয়োজন। সবুজ গাছগাছালি বাতাসের জলীয়বাষ্প ধারণক্ষমতা বাড়িয়ে দেয় এবং আবহাওয়াকে শীতল রাখে। এর ফলে প্রচুর বৃষ্টিপাত হয়। বৃক্ষ জমির উর্বরা শক্তি বৃদ্ধি করে, ভূমিক্ষয় রোধ করে, বৃক্ষ আমাদের অক্সিজেন দেয়। প্রাণিকুলের ত্যাগ করা বিষাক্ত কার্বন ডাই-অক্সাইড গ্যাস গ্রহণ করে। ফলে প্রাণীরা এ জগতে বেঁচে থাকতে পারে।

বৃক্ষরোপণের গুরুত্ব : বাংলাদেশের ভৌগোলিক ভূখণ্ডের তুলনায় বনভূমির পরিমাণ খুবই কম, তারপর আবার প্রতিবছর প্রচুর গাছ কেটে ফেলা হচ্ছে। প্রাকৃতিক দুর্যোগেও অনেক গাছপালা বিনষ্ট হচ্ছে। দেশের অর্থনীতি ও জনজীবনে স্বাচ্ছন্দ্য আনয়নের লক্ষ্যে আমাদের প্রত্যেকের অন্তত দুটি করে গাছ লাগানো উচিত।

বৃক্ষরোপণ অভিযান সফল করার উপায় : বৃক্ষরোপণ অভিযান সফল করতে হলে সরকারের পাশাপাশি জনগণকেও এগিয়ে আসতে হবে। গাছ কাটার ক্ষেত্রে কঠোর আইন প্রণয়ন ও বনভূমি সংরক্ষণে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।
জনগণকে সামাজিক বনায়নে উদ্বুদ্ধ করার জন্য তাদের রোপিত বৃক্ষের অংশীদার করতে হবে। তাহলেই বৃক্ষরোপণ অভিযান অনেকাংশে সফল হবে।

উপসংহার : গাছপালা মানুষের পরম বন্ধু। তাই বৃক্ষের প্রয়োজন আমাদের জীবনে অনস্বীকার্য বলে এর যত্ন ও সংরক্ষণের দায়িত্ব আমাদের সবার। এর জন্য বৃক্ষরোপণ করে এ দেশের বনভূমির পরিমাণকে বাড়িয়ে বাংলাদেশকে আবার সবুজতায় ভরিয়ে দিতে হবে।

শিক্ষক, বর্ণমালা আদর্শ স্কুল ও কলেজ, ঢাকা।

 
Electronic Paper