কলাপাড়ায় জমে উঠেছে নির্বাচনী মাঠ

সোলায়মান পিন্টু, কলাপাড়া / ৫:২৮ অপরাহ্ণ, মে ৩০,২০২২

পটুয়াখালীর কলাপাড়ার দু’টি ইউনিয়নের ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৫ জুন। সেই নির্বাচনকে সামনের রেখে উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে নির্বাচনী এলাকায়। এলাকার চায়ের দোকানের টেবিলে আলোচানার ঝড় তুলছেন সাধারন ভোটাররা। প্রচার-প্রচারনায় সরগরম হয়ে উঠেছে বঙ্গোপসাগর ঘেষা এ দুই ইউনিয়ন।

তবে আওয়ামীলীগ ও ইসলামী এক্যজোট মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থীদের প্রতীক আগে থেকে বরাদ্ধ থাকায় প্রচারে তারা এগিয়ে ছিলেন। পোষ্টার, লিফলেট, হ্যান্ড বিল আগেই ছাপিয়ে রেখেছিলেন তারা। এক্ষেত্রে কিছুটা পিছিয়ে ছিলেন স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান, সাধারন ও সংরক্ষিত সদস্য পদের প্রার্থীরা।

উপজেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানায়, উপজেলার ধূলাসার ও লতাচাপলী ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ১০ জন, সাধারন সদস্য পদে ৫২ জন এবং সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে প্রতিন্ধন্ধিতা করছেন ৩৫ জন প্রার্থী। মোট ১৪০৩৬ জন ভোটার নিয়ে গঠিত ধূলাসার ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ মনোনীত মো. মোদাচ্ছের হাওলাদার, শাহরিয়ার সবুজ (আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র), মো.মাহবুবুর রহমান(আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র), ডা. ইয়াকুব খান(আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র), উম্মে হাফসা রিপা (আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র), মেহেদী হাসান পিন্স (বিএনপি স্বতন্ত্র), ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ’র মনোনীত হাফেজ ক্বারী মোহা. আবদুর রহিম চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়েছেন।

এছাড়া ১৭৭০৮ জন ভোটারের লতাচাপলী ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়েছেন মো.আনসার উদ্দিন মোল্লা, স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছেন মো.সফিকুল আলম (স্বতন্ত্র) ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ’র মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. মোসলেম মুসুল্লী।

ভোটারা বলেন, প্রতীক বরাদ্দেরর পর থেকে আওয়ামীলীগ, বিএনপি স্বতন্ত্র, আওয়ামীলীগ বিদ্রোহী, ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ’র আমীর পীর সাহেব চরমোনাই প্রার্থীরা প্রচারে নেমে পড়েন। আগে থেকেই তৈরি করা লিফলেট ও হ্যান্ডবিল এবং দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে তারা ঘুরে বেড়ান গ্রামের পর গ্রাম। পিছিয়ে নেই স্বতন্ত্র প্রার্থীরাও। নানা ধরনের উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি সব প্রার্থীদের মুখে যেন লেগেই থাকে।

উপজেলা ধুলাসার ইউনিয়নের চাপলী বাজারের মেহেদী হাসান বলেন, এখন পর্যন্ত শান্তিপূর্ন ভাবে প্রচারনা চলছে। তবে ২/১ টি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটেছে। প্রতীক বরাদ্ধ পেয়ে প্রার্থীদের সমর্থকরা প্রচারনায় মেতেছেন। রাস্তায় রাস্তায় পোষ্টার ও মাইকে প্রচারনায় উপলদ্ধি করছি নির্বাচনী আমেজ।

লতাচপলী ইউনিয়নের মনির হোসেন বলেন, নির্বাচনী প্রচারের মাইকের শব্দে গোটা ইউনিয়নের বাতাস ভারী হয়ে উঠেছে। পেষ্টারে ছেড়ে গেছে পুরো এলাকা। এখন পর্যন্ত পরিবেশ যা আছে তাতে আশা করছি শান্তিপূর্ন ভাবে পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে পারবো। আর প্রার্থীদের উঠান বৈঠক যেন জনসভায় রূপ নেয়।

কলাপাড়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার আবদুর রশিদ বলেন, সুষ্টু ও শান্তিপূর্ন নির্বাচনের লক্ষ্যে দুই ইউনিয়নের সব প্রার্থী নিয়ে গত শুক্রবার সকালে মিটিং করেছি। শান্তিপূর্ন নির্বাচন হওয়ার ব্যাপারে সব প্রার্থীদের আস্বস্ত করা হয়েছে। ইভিএম’র ব্যপারেও আলোচনা হয়েছে। আগামী ১৫ জুন ইভিএম মেশিনে ভোট গ্রহন হবে।

 

সম্পাদক ও প্রকাশক : আহসান হাবীব

বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : বসতি হরাইজন, ১৭-বি, বাড়ি-২১, সড়ক-১৭, বনানী, ঢাকা
ফোন : বার্তা-৯৮২২০৩২, ৯৮২২০৩৭, মফস্বল-৯৮২২০৩৬
বিজ্ঞাপন-৯৮২২০২১, ০১৭৮৭ ৬৯৭ ৮২৩,
সার্কুলেশন-৯৮২২০২৯, ০১৮৫৩ ৩২৮ ৫১০
Email: kholakagojnews7@gmail.com
            kholakagojadvt@gmail.com