অমানুষিকভাবে পুলিশ ছাত্রদের লাঠিপেটা করেছে: মোশাররফ

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল ২০২১ | ৭ বৈশাখ ১৪২৮

অমানুষিকভাবে পুলিশ ছাত্রদের লাঠিপেটা করেছে: মোশাররফ

নিজস্ব প্রতিবেদক ৫:৫১ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২১

print
অমানুষিকভাবে পুলিশ ছাত্রদের লাঠিপেটা করেছে: মোশাররফ

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ছাত্রদলের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে পুলিশ নির্দয়ভাবে কাঁদানে গ্যাস ও রাবার বুলেট ছুড়েছে। অমানুষিকভাবে এই কর্মসূচিতে পুলিশ ছাত্রদের লাঠিপেটা করেছে। এতে বহু কর্মী আহত হয়েছেন।

রোববার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে জিয়াউর রহমানের খেতাব বাতিলের প্রতিবাদে জিয়া পরিষদের সভায় এসব অভিযোগ করেন তিনি।

রাজধানীতে ছাত্রদলের বিক্ষোভ কর্মসূচিকে ঘিরে পুলিশের সাথে ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। ২৮ ফেব্রুয়ারি, রোববার (আজ) বেলা ১১টার দিকে প্রেসক্লাবের সামনে দফায় দফায় এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে লাঠিচার্জ, টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে পুলিশ। এ সময় পুলিশের ওপর ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে ছাত্রদল কর্মীরা।

খন্দকার মোশাররফ বলেন, ফ্যাসিবাদী ও স্বৈরাচারী সরকার এভাবে এই ধরনের প্রতিবাদকে দাবিয়ে দিতে চাচ্ছে। কিন্তু এটা কখনোই সফল হবে না। সাময়িকভাবে হয়তো দাবিয়ে রাখা যাবে। কিন্তু জনগণের প্রতিবাদকে, জনগণের ক্রোধকে সারা জীবনের জন্য দাবিয়ে রাখা যায় না। অতীতেও স্বৈরাচারেরা এই চেষ্টা করেছে। পাকিস্তান আমলে আইয়ুব খান এবং বাংলাদেশের এরশাদকে দেখেছি। কিছুদিন পর্যন্ত স্বৈরাচারেরা গায়ের জোরে এভাবে পুলিশি অ্যাকশন দিয়ে টিকে থাকতে পারে। বেশি দিন টিকতে পারে না।

জিয়াউর রহমানের খেতাব বাতিলের প্রতিবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, জিয়াউর রহমানের খেতাব কাগজ থেকে মুছে ফেলা যেতে পারে। কিন্তু জিয়াউর রহমান যে বীর উত্তম, জিয়াউর রহমান যে এই দেশের বীর মুক্তিযোদ্ধা, জিয়াউর রহমান যে দেশে প্রথম স্বাধীনতার ডাক দিয়েছেন, এটা তো এ দেশের মানুষের মন থেকে মুছে দেওয়া যাবে না। অতএব যারা এই চেষ্টা করছেন, বৃথা চেষ্টা করছেন।

জিয়া পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল কুদ্দুসের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য দেন বিএনপির শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক এ বি এম ওবায়দুল ইসলাম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক লুৎফর রহমান, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আবদুল লতিফ মাসুম প্রমুখ।