‘৯০ সালের পর থেকেই দেশে গণতান্ত্রিক চর্চা নেই: জিএম কাদের

ঢাকা, সোমবার, ১ মার্চ ২০২১ | ১৬ ফাল্গুন ১৪২৭

‘৯০ সালের পর থেকেই দেশে গণতান্ত্রিক চর্চা নেই: জিএম কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক ৯:৪৪ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২১

print
‘৯০ সালের পর থেকেই দেশে গণতান্ত্রিক চর্চা নেই: জিএম কাদের

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের বলেছেন, সংসদীয় গণতন্ত্রের নামে সংবিধানে ৭০ ধারা সংযোজনের কারণে সরকারপ্রধানের অধীনে দেশের নির্বাহী বিভাগ, আইন বিভাগ ও নিম্ন আদালত। আবার উচ্চ আদালতের নিয়োগ থেকে অনেক কিছুই সরকারপ্রধানের প্রভাব থাকে, যাতে কোনোমতেই গণতান্ত্রিক চর্চা সম্ভব নয়। তাই ১৯৯০ সালের পর থেকেই দেশে গণতান্ত্রিক চর্চা নেই।

রবিবার দুপুরে রাজধানীর বনানীতে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে জাতীয় শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন তিনি।

জিএম কাদের বলেন, ‘স্বাধীনতার আগে পশ্চিম পাকিস্তানিদের সঙ্গে আমাদের বৈষম্য ছিল। কিন্তু ১৯৯০ সালের পর থেকে দেশের মানুষের সঙ্গে বৈষম্য হচ্ছে। দেশের মানুষকে বঞ্চিত করে দলীয়করণ চলছে। উপজেলা পর্যায়ের নেতারাও হাজার কোটি টাকা বিদেশে পাচার করছে। যারা রাষ্ট্র ক্ষমতায় থাকে তারাই চাকরি ও ব্যবসার সুযোগ পাচ্ছে। কিন্তু দেশের সাধারণ মানুষ সব অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।’

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, ‘একুশের ধারাবাহিকতায় মুক্তির জন্য স্বাধীনতা সংগ্রাম হয়েছিল। মুক্তিযুদ্ধে আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি। কিন্তু এখনো আমরা মুক্তি পাইনি।’

আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন জাতীয় পার্টির মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু, জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার, কাজী ফিরোজ রশীদ, জাতীয় সংসদের বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ মো. মসিউর রহমান রাঙ্গা এমপি প্রমুখ।