রংপুরে জাপায় উত্তেজনা, সাদ এরশাদ লাঞ্ছিত

ঢাকা, মঙ্গলবার, ৭ জুলাই ২০২০ | ২৩ আষাঢ় ১৪২৭

রংপুরে জাপায় উত্তেজনা, সাদ এরশাদ লাঞ্ছিত

সাইফুল ইসলাম, রংপুর ১১:৫৮ পূর্বাহ্ণ, জুন ০৪, ২০২০

print
রংপুরে জাপায় উত্তেজনা, সাদ এরশাদ লাঞ্ছিত

রংপুরের পল্লীনিবাসে সাংসদ রাহগির আল মাহি সাদ এরশাদের ঈদ পরবর্তী মতবিনিময় সভায় হট্টগোলের ঘটনা ঘটেছে। এতে সংসদ সদস্যকে লাঞ্ছিত করাসহ হামলা চেষ্টার অভিযোগে দলের এক নেতাকে পুলিশ আটক করেছে। বিদ্যমান এই পরিস্থিতিতে মহানগর জাতীয় পার্টি ও এরশাদপুত্র রাহগীর আল মাহী সাদ পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

এতে সাদ এরশাদ বলেন, ডিও লেটারে (চাহিদাপত্র) স্বাক্ষর না করার ঘটনাকে কেন্দ্র করে মতবিনিময় সভায় হট্টগোল করে তাকে ও তার স্ত্রীকে লাঞ্ছিত করা হয়েছে। এ ঘটনায় স্থানীয় নেতাদের ইন্ধন রয়েছে। গতকাল বুধবার দুপুর ২টার দিকে দর্শনার পল্লী নিবাসে সংবাদ সম্মেলনে জাতীয় পার্টির যুগ্ম মহাসচিব ও সংসদ সদস্য রাহগির আল মাহি সাদ এরশাদ এসব অভিযোগ করেন।

তিনি আরও জানান, ঈদের পর মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নেতাকর্মীদের নিয়ে বৈঠক করছিলাম। সেখানে ডিও লেটারে স্বাক্ষর না দেওয়ায় তাকে ও তার স্ত্রীকে গালিগালাজ করে ও ভয়ভীতি দেখিয়ে লাঞ্ছিত করা হয়। এসময় নিজের জীবনের নিরাপত্তা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেন এরশাদপুত্র।

অন্যদিকে ওই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত দাবিসহ আটক নেতাকে ছেড়ে দিতে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দিয়েছে মহানগর জাতীয় পার্টির সভাপতি ও সিটি মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা। বুধবার দুপুরে নগরী সেন্ট্রাল রোডের দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন মহানগর জাতীয় পার্টির সভাপতি ও সিটি মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা।

তিনি অভিযোগ করেন, বহিরাগত ও ভাড়াটে গুন্ডাদের সঙ্গে নিয়ে রংপুরে রাজনীতি করছেন সাংসদ সাদ এরশাদ। তার লেলিয়ে দেওয়া বাহিনী ২৭ নম্বর ওয়ার্ড জাপার সাধারণ সম্পাদক টিপু সুলতান ওরফে রংপুরীকে মারধর করেছে। অন্যায়ভাবে তাকে পুলিশে সোপর্দ করে ঘটনা ভিন্নখাতে প্রভাবিত করতে চেষ্টা করছে।

ওই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তসহ আটক নেতাকে ছেড়ে দিতে ২৪ ঘণ্টা সময় বেঁধে দেন সিটি মেয়র মোস্তফা। একই সঙ্গে দ্রুত এর সুরাহা না হলে বৃহত্তর কর্মসূচি দেওয়ার হুঁশিয়ারিও দেন তিনি। সংবাদ সম্মেলন শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে নগরীর গুরুত্বপূর্ণ প্রদক্ষিণ করে জাপার নেতা-কর্মীরা।

এদিকে আটকের বিষয়ে মেট্রোপলিটন পুলিশের তাজহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ রোকনুজ্জামান জানান, উদ্ভূত পরিস্থিতিতে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য জাপা নেতা টিপু সুলতানকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এখনও কোনো লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় পল্লীনিবাসে ডিও লেটারে স্বাক্ষর না করায় রংপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য রাহগির আল মাহি সাদ এরশাদের ওপর হামলার চেষ্টা ও লাঞ্ছিত করার অভিযোগে স্থানীয় নেতা টিপু সুলতানকে আটক করে পুলিশ। এ নিয়ে বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা পল্লীনিবাসের সামনে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ করেন। এই বিক্ষোভ মধ্যরাত পর্যন্ত চলে। এ ঘটার পর থেকে পল্লীনিবাস এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।