ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল চায় বিএনপি

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২ জুন ২০২০ | ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল চায় বিএনপি

নিজস্ব প্রতিবেদক ১০:২০ অপরাহ্ণ, মে ০৯, ২০২০

print
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল চায় বিএনপি

করোনা মহামারির সময়ে সারা দেশে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ব্যাপক অপব্যবহার চলছে অভিযোগ করে তা বাতিলের দাবি জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। গতকাল শনিবার রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই দাবি জানান।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘বিএনপি সুস্পষ্ট ভাষায় সরকারকে জানাতে চায়, সরকারকে জনরোষের আগুন থেকে রক্ষার জন্য বর্তমান ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের অপব্যবহার চলছে। এই মুহূর্তে রাষ্ট্রের এই অন্যায় বন্ধ করতে হবে। এই গণবিরোধী আইন বাতিল করতে হবে। আমরা চলমান বৈশ্বিক করোনা মহামারির সময়ে সারা দেশে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনসহ বিভিন্ন আইনের অপপ্রয়োগ করে গ্রেফতার ও হয়রানির নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।’ 

করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় সরকারের অব্যবস্থাপনা ও ব্যর্থতার বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে লেখালেখির কারণে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সাংবাদিক, কার্টুনিস্ট, লেখক, ব্যবসায়ীসহ কয়েকজনের গ্রেফতারের ঘটনা তুলে ধরে বিএনপি মহাসচিব বলেন, দেশে একটি কার্যকরী মানহানি আইন থাকা সত্ত্বেও নির্যাতন ও হয়রানির উদ্দেশ্যে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনকেই বারবার ব্যবহার করছে সরকার।

তিনি বলেন, গণতান্ত্রিক অধিকার তো দূরে থাকুক মানুষ তার কষ্টের কথাও যাতে ভার্চুয়াল জগতে প্রকাশ করতে না পারে তার জন্য একের পর এক পরিপত্র জারি করে চলেছে সরকার। দেশের বিভিন্ন জেলার বিএনপি ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের হরদম গ্রেফতার করা হচ্ছে ও আতঙ্কের মধ্যে রাখা হয়েছে। অথচ ত্রাণের চালচোর ও গমচোররা নিরাপদে ঘুরে বেড়াচ্ছে। এসবের মধ্য দিয়ে সরকারের নিষ্ঠুর, অমানবিক এবং ফ্যাসিবাদী চরিত্রের মুখোশ উন্মোচিত হয়েছে।

এদিকে গতকাল গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জানান, তার নিজের নামে কোনো ফেসবুক অ্যাকাউন্ট নেই।

তার নামে ভুয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্ট নিয়ে অস্বস্তি প্রকাশ করে তিনি বলেন, অনেক দিন থেকে লক্ষ করছি যে, কুচক্রী মহল থেকে আমার নামে ভুয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুলে বিভিন্ন বক্তব্য, মন্তব্য ও মতামত প্রকাশ করছে। আমি এর আগেও বলেছি এবং এখনও অত্যন্ত স্পষ্টভাবে বলতে চাই যে, আমার নামে আমি কোনো ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুলিনি।

সুতরাং এই সমস্ত ভুয়া অ্যাকাউন্টের কোনো মতামতের সঙ্গে আমার কোনো ধরনের সংশ্লিষ্টতা নেই এবং এর কোনো দায়-দায়িত্ব আমার নয়।

 

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ