আ. লীগের নতুন তালিকায় বাদ পরলেন দায়িত্বরত ১৪ জন

ঢাকা, বুধবার, ৮ এপ্রিল ২০২০ | ২৪ চৈত্র ১৪২৬

আ. লীগের নতুন তালিকায় বাদ পরলেন দায়িত্বরত ১৪ জন

খোলা কাগজ ডেক্স ২:৫৯ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২০

print
আ. লীগের নতুন তালিকায় বাদ পরলেন দায়িত্বরত ১৪ জন

বন্দরনগরী চট্টগ্রামে নতুন রাজনৈতিক মেরুকরণের কবলে পড়ে মেয়রের মতো পদবঞ্চিত হয়েছেন অন্তত ১৪ জন পুরুষ এবং ৫ জন নারী কাউন্সিলর। এদের প্রত্যেকেই বর্তমান মেয়র আ জ ম নাছিরের অনুসারী বলে পরিচিত।

অপরদিকে ঘোষিত তালিকায় দুই ক্যাটাগরির ৫৫টি পদেই আধিক্য রয়েছে প্রয়াত মেয়র মহিউদ্দিন চৌধুরীর অনুসারীদের। তবে আওয়ামী লীগ নেতারা মেরুকরণের বিষয়টি অস্বীকার করে দায়িত্বে ব্যর্থতার কারণে তাদের বাদ দেয়া হয়েছে বলে দাবি করেছেন।

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে ইতোমধ্যে চূড়ান্ত প্রার্থী হিসাবে ৪১ জন সাধারণ কাউন্সিলর এবং ১৪ জন সংরক্ষিত কাউন্সিলরের তালিকা প্রকাশ করেছে। তালিকা অনুযায়ী বর্তমানে দায়িত্বে আছেন এমন ১৪ জন সাধারণ কাউন্সিলর এবং ৫ জন সংরক্ষিত কাউন্সিলরকে বাদ দেয়া হয়েছে।

বিশেষ করে হাসান মুরাদ বিপ্লব, তারেক সোলেমান সেলিম, মোহাম্মদ হোসেন হিরন, এফ কবির মানিক বাদ পড়াকে নগরবাসী ভিন্ন দৃষ্টিতে দেখছেন। এবার অন্তত ২৫ জন নতুন প্রার্থী রয়েছে।

১৩ নম্বর পাহাড়তলী ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোহাম্মদ হোসেন হিরন বলেন আমার উপর নেতৃ কোনো না কোনো কারণে হয়তো মনঃক্ষুণ্ন হয়েছেন।

১৪ নম্বর লালখান বাজার ওয়ার্ড কাউন্সিলর এফ কবির মানিক বলেন, মূল্যায়নের ক্ষেত্রে প্রত্যেক প্রার্থীর ব্যক্তিগত মতামত নেয়া উচিত ছিল।

বর্তমান কাউন্সিলদের মধ্যে আ জ ম নাছিরের অনুসারীরা বেশি বাদ পড়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। আবার যারা তাালিকায় এসেছেন এদের প্রত্যেকেই নগর আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে প্রয়াত মেয়র মহিউদ্দিন চৌধুরীর অনুসারী হিসাবে পরিচিত।

বিশেষ করে আবুল হাসনাত বেলাল, মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন, মোহাম্মদ ওয়াসিম উদ্দিনসহ ২০ জনের বেশি নেতা-কর্মী রয়েছেন যারা নগর রাজনীতিতে মহিউদ্দিন গ্রুপের সাথে সম্পৃক্ত রয়েছেন।

তবে নগর আওয়ামী লীগ নেতারা নতুন মেরুকরণের বিষয়টি সরাসরি অস্বীকার করছেন। তাদের দাবি, গত ৫ বছর দায়িত্ব পালনে ব্যর্থতার জন্য কাউন্সিলরদের এবার বাদ দেয়া হয়েছে।

নগর আওয়ামী লীগ সহ সভাপতি খোরশেদ আলম সুজন বলেন, যারা বাদ পড়েছেন তাদের হয়তো রিপোর্ট ভালো ছিল না। তারা তাদের পারফমেন্সটা ভালো দেখাতে পারেনি হয়তো।

এবারের নির্বাচনে মেয়র পদে মনোনয়ন দৌড়ে এগিয়ে থেকেও শেষ পর্যন্ত বাদ পড়ে যান বর্তমান মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন। তার জায়গায় মনোনয়ন পেয়েছেন নগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক রেজাউল করিম চৌধুরী। তবে রেজাউল করিম চৌধুরীর নিজস্ব কোনো বলয় না থাকায় সে জায়গা দখলে নিয়েছে প্রয়াত মেয়র মহিউদ্দিন চৌধুরীর অনুসারীরা।