জন্মদিনে শুভেচ্ছাসিক্ত জয়

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

জন্মদিনে শুভেচ্ছাসিক্ত জয়

নিজস্ব প্রতিবেদক ১২:৫৩ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৮, ২০১৯

print
জন্মদিনে শুভেচ্ছাসিক্ত জয়

৪৯তম বছরে পদার্পণ করায় অনুরাগী ও শুভানুধ্যায়ীদের শুভেচ্ছাসিক্ত হয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দৌহিত্র ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়। ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাকে শুভেচ্ছা জানান অসংখ্য মানুষ। এসব পোস্টে তার কর্মজীবনে আরও সাফল্য অর্জন ও দীর্ঘায়ু কামনা করা হয়। এ ছাড়া আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে জয়ের জন্মদিনের কেক কাটা হয়। বরাবরই মায়ের সঙ্গে অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানে তার জন্মদিনের কেক কাটা হয়। তবে এবার প্রধানমন্ত্রী সরকারি সফরে যুক্তরাজ্যে অপরদিকে জয় যুক্তরাষ্ট্রে রয়েছেন। ফলে এবার তার জন্মদিন ঘিরে পারিবারিক কোনো আয়োজন করা হয়নি।

গতকাল শনিবার প্রথম প্রহর থেকেই আওয়ামী লীগ এবং এর সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জয়কে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানান।

তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক তার ফেসবুক পাতায় ‘ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা’ জয়ের ছবি দিয়ে একটি পোস্ট দিয়েছেন। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন লিখেছেন

‘শুভ জন্মদিন... আগামী বাংলার রূপকার...’

শুভেচ্ছা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীর উপ প্রেসসচিব আশরাফুল আলম খোকন লিখেছেন ‘শুভ জন্মদিন... আগামীর সমৃদ্ধ বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি।’

এভাবে দলের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মী তাকে শুভেচ্ছা জানান। দলীয় নেতা-কর্মী ছাড়াও সাধারণ মানুষ তাকে শুভেচ্ছা জানান।

জয় দেশে থাকলে প্রতি বছর জন্মদিনে মা শেখ হাসিনা নিজে রান্না করে খাওয়ান তাকে। পাশাপাশি অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানে কেক কেটে তার জন্মদিন পালন করা হয়। কিন্তু এবার প্রধানমন্ত্রী সরকারি সফরে লন্ডনে। জয়ও যুক্তরাষ্ট্রে। এ কারণে দেশে তার জন্মদিনের কোনো আনুষ্ঠানিকতা নেই।

বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় ১৯৭১ সালের ২৭ জুলাই অবরুদ্ধ ঢাকায় পরমাণু বিজ্ঞানী ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া ও শেখ হাসিনা দম্পতির সন্তান জয়ের জন্ম হয়। বিজয়ের পর তার নাম রাখেন নানা শেখ মুজিবুর রহমান।

১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর জয় মায়ের সঙ্গে জার্মানি হয়ে ভারতে যান। তার শৈশব-কৈশোর কেটেছে ভারতে। নৈনিতালের সেন্ট জোসেফ কলেজে লেখাপড়ার পর যুক্তরাষ্ট্র্রের ইউনিভার্সিটি অব টেক্সাস অ্যাট আর্লিংটন থেকে কম্পিউটার সায়েন্সে স্নাতক করেন। পরবর্তীতে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে লোকপ্রশাসনে স্নাতকোত্তর করেন তিনি।
২০০২ সালের ২৬ অক্টোবর ক্রিস্টিন ওভারমায়ারকে বিয়ে করেন জয়। এই দম্পতির সোফিয়া নামে একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। ২০১০ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি জয় রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের প্রাথমিক সদস্যপদ গ্রহণ করেন।

বর্তমানে তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার তথ্যপ্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টার দায়িত্বে আছেন।