আগুনের ছোঁয়া

ঢাকা, শনিবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২০ | ৪ মাঘ ১৪২৬

আগুনের ছোঁয়া

বিবিধ ডেস্ক ৩:১৪ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৯

print
আগুনের ছোঁয়া

গ্রামে ঘুমুতে গেলে লেপ-কম্বলেও শীত মানছে না। পৌষের শীতে সবাই গরমের পোশাকে জবুথবু। শীতে গ্রামে সবাই মিলে লাকড়ি জ্বালিয়ে আগুন পোহানোর মধুর চিত্র দেখা যায়, দেখা যায় সূর্য ওঠার সঙ্গে সঙ্গে বাড়ির আঙিনায় রোদ পোহানোর দৃশ্য। প্রকৃতির পরিবর্তনও গ্রামে লক্ষণীয়; মাঠে-জমিতে সবুজ শাকসবজি আর খেজুর গাছে রসের হাঁড়ি তো আছেই। প্রচণ্ড এই শীতে দেশজুড়ে যে দৃশ্যটি সবার পরিচিত, সেটা হলো শীতের প্রকোপ থেকে বাঁচতে আগুন পোহানো।

দাদা, দাদি, চাচা, জ্যাঠা, ভাইবোন সবাই মিলে নাড়ায় আগুন দিয়ে চারদিকে গোল হয়ে বসে আগুন পোহাবার স্মৃতি দেশের প্রায় প্রত্যেকের আছে। আগুন পোহাতে পোহাতে দাদির গল্প আর একটা একটা করে পিঠার কামড়। সে এক স্বর্গীয় ব্যাপার।

আগুন তাপানোর আয়োজনটা সাধারণত করে থাকে বাচ্চারাই। যদিও সে আয়োজন উপভোগ করে সবাই। তবে আগুন পোহাতে গিয়ে গাঁয়ের মানুষের দুর্ভোগও কম না।

প্রায়ই সংবাদপত্রে সে খবর উঠে আসে। পুড়ে দগ্ধ, পুড়ে মৃত্যু পর্যন্ত হয় মানুষের। তারপরও শীতের প্রকোপ সহ্য করতে না পেরে মানুষ আগুন পোহায়। আগুন পোহাতে পোহাতে দাদির গল্প শুনে, গল্প করে, পিঠা খায়। যেন শীত এসেছে সবাইকে আগুনের পাশে একসঙ্গে করতে, একসঙ্গে বসাতে।