রামুতে হামলার সাত বছর

ঢাকা, শনিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৯ | ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

রামুতে হামলার সাত বছর

বিবিধ ডেস্ক ১১:৫৭ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৩, ২০১৯

print
রামুতে হামলার সাত বছর

কক্সবাজারের রামুতে বৌদ্ধবিহারে হামলার সাত বছর হয়ে গেল। ২০১২ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর উত্তম বড়ুয়া নামে এক যুবকের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ধর্মীয় অবমাননাকর একটি ছবি দেওয়ার গুজবে রামুর বৌদ্ধবিহারগুলোতে অগ্নিসংযোগ এবং বসতিতে হামলা করা হয়। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির তীর্থ হিসেবে পরিচিত রামুতে এ সহিংস ঘটনা দেশে-বিদেশে ব্যাপক সমালোচনার জন্ম দেয়। উত্তম বড়ুয়া নামের এ যুবকের বিরুদ্ধে ফেসবুকে পবিত্র কোরআন শরিফ অবমাননার অভিযোগ এনে ২০১২ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর রাতে উগ্র ধর্মান্ধ গোষ্ঠী রামুর ১২টি প্রাচীন বৌদ্ধবিহার ও ২৬টি বসতঘরে অগ্নিসংযোগ করে।

এ সময় আরও ছয়টি বৌদ্ধবিহার ও শতাধিক বসতঘরে ভাঙচুর ও লুটপাট করা হয়। পরদিন উখিয়া-টেকনাফে আরও কয়েকটি বৌদ্ধবিহার ও বসতিতে হামলা চালানো হয়। সহিংসতা-পরবর্তী সরকারের যথাযথ উদ্যোগের ফলে অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত বিহারগুলো নতুন করে নির্মাণ করা হয়। পুনঃনির্মিত বিহারগুলোতে এখন বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের লোকজন নির্বিঘ্নে উপাসনা ও ধর্মীয় সব কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন। আর দৃষ্টিনন্দন হওয়ায় রামুর বিহারগুলো দেখতে প্রতিদিন শত শত পর্যটক ছুটে আসেন।