গোসল দিয়ে রোজা শুরু

ঢাকা, রবিবার, ১৬ জুন ২০১৯ | ২ আষাঢ় ১৪২৬

দেশে দেশে রোজার বৈচিত্র্য

গোসল দিয়ে রোজা শুরু

বিবিধ ডেস্ক ৩:৪১ অপরাহ্ণ, মে ২২, ২০১৯

print
গোসল দিয়ে রোজা শুরু

সবচেয়ে বেশি মুসলমান বাস করেন ইন্দোনেশিয়ায়। প্রায় ২৭ কোটিরও বেশি জনঅধ্যুষিত এই দেশের ৯০ ভাগই মুসলমান। তবে সরকারিভাবে ইন্দোনেশিয়া কোনো মুসলিম রাষ্ট্র নয়; ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্র। ইন্দোনেশিয়ায় অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে পবিত্র রমজান মাসের সিয়াম সাধনা করা হয়। যার শুরু হয় মূলত, মাহে রমজানের চাঁদ দেখার আগে থেকেই। রমজানের ঠিক আগে ইন্দোনেশিয়ার একেকটি অঞ্চলে একেক ধরনের রীতি-নীতি বা ঐতিহ্য লালনের নজির রয়েছে।

ইন্দোনেশিয়া বাতেন রাজ্যের ত্যাগেরাং এবং জাভা অঞ্চলে রমজান শুরুর আগে ‘পাডুসান’ নামক এক ঐতিহ্য পালন করা হয়। ‘পাডুসান’ শব্দের অর্থ গোসল করা। 

এ সময় ধনী-গরিব-নির্বিশেষে সব বয়সের মানুষ পাহাড় ঝরনার স্বচ্ছ পানিতে মন ভরে গোসল করে নিজেদের শরীর এবং মনকে পবিত্র করে নেয়। যারা পাহাড়ি ঝরনার কাছে যেতে পারে না তারা স্থানীয় নদী বা প্রাকৃতিক জলাধারে নেমে পড়ে। এই গোসলের কোনো নির্দিষ্ট সময় না থাকলেও পরিবার-পরিজনসহ বেশ বড়সড় একটা জমায়েত হয়ে যায়, যা চলে দিনভর।

এরপর পরিষ্কার পোশাক ও দেহমন নিয়ে শুরু হয় মাহে রমজানের সিয়াম সাধনা। পশ্চিম সুমাত্রায় নদী, হ্রদ কিংবা নিজের বাসায় গোসল করে নেয় যা ‘কালিমা’ নামেও পরিচিত।

নেলপ নামের ঐতিহ্য অনুসারে দক্ষিণ লপাংয়ের কালিয়ান্দা এলাকায়ও রমজান শুরুর আগের দিন বেলা থাকতেই স্থানীয় কেটাং কালিয়ান্দা সমুদ্রসৈকত এলাকাবাসী গোসল করে নেন সমুদ্রের জলে। মাহে রহমানের পবিত্র চাঁদ দেখার আগ পর্যন্ত চলে নিজের দেহ-মনকে পবিত্র করার এই চর্চা।