প্রাণ হারালেন যারা

ঢাকা, রবিবার, ১৬ জুন ২০১৯ | ২ আষাঢ় ১৪২৬

রক্তে রঞ্জিত লঙ্কা শ্রী

প্রাণ হারালেন যারা

বিবিধ ডেস্ক ১:৫০ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৪, ২০১৯

print
প্রাণ হারালেন যারা

নিহতদের মধ্যে অধিকাংশই শ্রীলঙ্কান। তবে কমপক্ষে ৩১ জন বিদেশি নাগরিকও রয়েছেন। এর মধ্যে ব্রিটেন, ভারত, ডেনমার্ক, সৌদি আরব, চীন, তুরস্ক এবং বাংলাদেশের নাগরিকরাও আছেন। প্রাণ হারানো কিছু সংখ্যক মানুষ সম্পর্কে যতটুকু প্রকাশ হয়েছে।

তারকা শেফ সামান্থা ও তার কন্যা নিসাঙ্গা
বিস্ফোরণে নিহতদের মধ্যে প্রথম যাদের পরিচয় পাওয়া গেছে তিনি দেশটির সুপরিচিত শেফ সামান্থা মায়াদুন্নে। বিস্ফোরণের ঠিক কিছু আগেই তার মেয়ে নিসাঙ্গা সাংগ্রি-লা হোটেলে সকালের নাশতা সাড়ার সময় তোলা তাদের পরিবারের একটি ছবি পোস্ট করেছিলেন।

সিনামুন গ্র্যান্ড হোটেলের চার কর্মী
হোটেলের একটি রেস্টুরেন্টের চার কর্মী নিহত হয়েছেন এ ঘটনায়। নিহত চারজন হলেন সান্থা, সাঞ্জিভানী, ইব্রাহিম ও নিসথার।

সাংগ্রি-লা হোটেলের তিন স্টাফ
ফেসবুকে এক বিবৃতি দিয়ে হোটেলটি জানিয়েছে, তাদের তিন কর্মী গুরুতর আহত হয়। তাদের সম্পর্কে বিস্তারিত আর কিছু জানানো হয়নি।

ডেনিশ বিলিয়নিয়ারের তিন সন্তান
ডেনিশ ধনকুবের আন্দ্রেস হোচ পোভলসেনের তিন সন্তান নিহত হয়েছেন। মিস্টার পোভলসেন (৪৬) ব্যাপক জনপ্রিয় অনলাইন রিটেইলার আসসের বড় অংশীদার।

ব্রিটেনের আট নাগরিক
কলম্বোতে ব্রিটিশ হাইকমিশনার জেমস দাউরিস ব্রিটিশ আট নাগরিকের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন। এর মধ্যে রয়েছেন একই পরিবারের তিনজন। ব্রিটিশ নাগরিকদের অধিকাংশই নিহত হয়েছেন সাংগ্রি-লা হোটেলে।

চার রাজনীতিকসহ আট ভারতীয়
নিহত আট ভারতীয়র মধ্যে পাঁচজন বেঙ্গালুরুতে একটি রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী। তারা জনতা দল পার্টির সদস্য। কর্ণাটক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী এইচ ডি কুমারাস্বামী টুইট বার্তায় বলেছেন তিনি এসব নেতাকর্মীকে ব্যক্তিগতভাবেই চিনতেন।

দুই তুর্কি প্রকৌশলী
তুরস্কের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম আনাদোলু তাদের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে। প্রকৌশলী সেরহান সেলচুক নারিসি ২০১৭ সাল থেকে কলম্বোতে বাস করছিলেন। আরেকজন হলেন ভিগিত আলী কেভাস, তিনিও একজন প্রকৌশলী।

অস্ট্রেলিয়ান মা ও মেয়ে
নেগম্বো শহরে সেন্ট সেবাস্টিয়ান গির্জায় নিহত হয়েছেন এক অস্ট্রেলিয়ান মা ও তার ১০ বছর বয়সী মেয়ে। মানিক সুরিয়ারাচি ও মেয়ে আলেক্সান্দ্রিয়া গির্জায় রোববারের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন স্বামী সুদেশ কলণের সঙ্গে।

সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী শেখ সেলিমের নাতি
বাংলাদেশের রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগ নেতা শেখ ফজলুল করিম সেলিমের নাতিও এ ঘটনায় নিহত হয়েছে। কলম্বোর হোটেল বিস্ফোরণে সে মারা যায়। তার পিতাও ওই ঘটনায় আহত হয়েছে।

এ ছাড়াও নিহতদের মধ্যে রয়েছে পর্তুগালের ইলেকট্রিক ইঞ্জিনিয়ার রুই লুকাস, ডাচ্ নাগরিক মনিক অ্যালেন, যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক ডিয়েটের কোভালস্কি এবং ওয়াশিংটনের স্কুলছাত্র কিয়েরেন শাফরিটজ ডি জয়সা। যদিও স্টেট ডিপার্টমেন্ট কর্মকর্তাকে উদ্ধৃত করে যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যম বলছে কমপক্ষে চারজন আমেরিকান এ ঘটনায় নিহত হয়েছেন।