দর্শনের স্বরূপ

ঢাকা, বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

দর্শনের সারাৎসার

দর্শনের স্বরূপ

তৌফিকুল ইসলাম ৫:৪৮ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৫, ২০১৮

print
দর্শনের স্বরূপ

জ্ঞানের আদি ও ধ্রুপদী বিষয় হিসেবে দর্শনচর্চার প্রয়োজনীয়তা এবং বর্তমান বিশ্বের প্রাসঙ্গিকতার উপলব্ধি থেকে জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতিবিষয়ক অঙ্গসংগঠন ইউনেস্কো ২০০২ সালে বিশ্ব দর্শন দিবস হিসেবে ঘোষণা দেয়। এরপর ২০০৫ সাল থেকে প্রতিবছর নভেম্বর মাসের তৃতীয় বৃহস্পতিবার বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বিশ্ব দর্শন দিবস পালিত হয়ে আসছে। দিবস উপলক্ষে দর্শনের সারাৎসার খোঁজ করেছেন তৌফিকুল ইসলাম

দর্শন জগত জীবনের মৌলিক বিষয়ের কারণ অনুসন্ধান করে। প্রশ্নালু চোখে খুঁজে ফেরে পৃথিবীতে বিদ্যমান বাস্তবতার সারনির্যাস। দর্শনের সুনির্দিষ্ট সংজ্ঞায়ন না পাওয়া গেলেও জগতবিখ্যাত দার্শনিকরা চেষ্টা করেছেন দর্শন কি? এ প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার।

আর জে. হার্স্টের মতে, দর্শন হচ্ছে মানুষের স্বরূপ এবং মানুষ যে জগতে বসবাস করে, সেগুলোর সঙ্গে জড়িত কতিপয় মৌলিক সমস্যার যৌক্তিক অনুসন্ধান। দার্শনিকদের আলোচনায় পৃথিবীর আদি উৎসসহ মানব সমাজে বিদ্যমান নানা ‘ইজম’ বা মতবাদ আলোচিত হয়।

চিন্তাদর্শনের ভিন্নতায় দার্শনিকরা ভিন্ন মত যেমন দিয়েছেন, আবার ক্ষেত্রবিশেষে দার্শনিকদের মধ্যে চিন্তার মিলও খুঁজে পাওয়া যায়। অন্যদিকে দর্শনে একটি জনপ্রিয় কথা প্রচলিত আছে, যা ‘বৈচিত্র্যের মাঝে একতা’ বলে গণ্য হয়।