নারীর সংরক্ষিত আসনটি ছেড়ে দিন

ঢাকা, শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

নারীর সংরক্ষিত আসনটি ছেড়ে দিন

জিএম আদল ১০:০০ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৯

print
নারীর সংরক্ষিত আসনটি ছেড়ে দিন

আইনে উল্লেখ আছে, আইন ভঙ্গ করলে আপনাকে শাস্তি পেতে হবে। আমরা অনেক সময় জেনে আইন ভঙ্গ করি আবার অনেক সময় না জেনেও আইন ভঙ্গ করে থাকি। আপনি আইন সম্পর্কে না জেনে যদি আইন ভঙ্গ করেন তবুও আপনাকে শাস্তি পেতে হবে কারণ আইন ধরে নেয় সব নাগরিক উক্ত আইনটি সম্পর্কে অবগত রয়েছেন। আইন ভঙ্গ করলে আদালত নানা ধরনের শাস্তি দিয়ে থাকে, এর বাইরে অনেক সময় না জেনে আইন ভঙ্গ করার ফলে লজ্জা দণ্ডেও দণ্ডিত হতে হয়। বাসে একজন পুরুষ যখন নারীর জন্য সংরক্ষিত আসনে বসে থাকেন, তখন এমন দণ্ডে অনেকেই দণ্ডিত হতে পারেন।

প্রায় চার বছর আগে উচ্চমাধ্যমিক পাস করে যখন প্রথম ঢাকায় আসি তখন এমন অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হতে হয়েছে। আপনাদের কারও যেন এমন অভিজ্ঞতার মুখোমুখি না হতে হয়, কিংবা এমন ভুল যাতে কেউ না করেন সে জন্য আইনটি মনে করিয়ে দিতে চাই।

‘সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮’-তে নারীদের সংরক্ষিত আসনের কথা স্পষ্ট করেই উল্লেখ রয়েছে। নারীদের পাশাপাশি প্রতিবন্ধী, প্রবীণ এবং শিশুদের সংরক্ষিত আসনের কথাও এই আইনে উল্লেখ আছে। উক্ত আসনগুলোতে নারী, প্রতিবন্ধী, প্রবীণ এবং শিশু ব্যতীত অন্য কেউ বসতে পারবে না বলে আইনে উল্লেখ করা হয়েছে।

রাজধানীতে চলাচল করা বাসগুলোতে যেহেতু ভিড় লেগেই থাকে, তাই গণপরিবহন এক অর্থে নারীর জন্য অনিরাপদ। এ দিকটি বিবেচনা করে হলেও নারীর জন্য এই সংরক্ষিত আসনে শুধু নারীকেই বসার সুযোগ করে দেওয়া উচিত বলে মনে করি।

জিএম আদল
শিক্ষানবিস আইনজীবী, ঢাকা জজ