ক্যাম্পাসে ধূমপান নিষিদ্ধ করা হোক

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯ | ৩০ কার্তিক ১৪২৬

ক্যাম্পাসে ধূমপান নিষিদ্ধ করা হোক

জয়নাল আবেদিন ৯:৪৯ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০১৯

print
ক্যাম্পাসে ধূমপান নিষিদ্ধ করা হোক

বেশ কয়েকটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজ ধূমপানমুক্ত ক্যাম্পাস নামে আইনে স্বীকৃতি থাকলেও তা আইনের সূচিতেই সীমাবদ্ধ। এ নিয়ে কোনো পদক্ষেপ নেই। যার ফলে ক্যাম্পাসে সিগারেট খাওয়া এখানকার ক্যাম্পাস জীবনে ফ্যাশনে পরিণত হয়েছে। যারা সিগারেট খায় না তাদের বন্ধু হওয়ারও যোগ্যতা নাই বলে মনে করে ধূমপায়ীদের একাংশ।

সম্প্রতি ধূমপানের বিরুদ্ধে প্রচারণার তাগিদ দিয়ে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ জানিয়েছেন, যারা সিগারেট খায় না, তাদের পুরস্কৃত করা উচিত।

গণমাধ্যম সূত্র জানা যায়, ২০১৩ সালের সেপ্টেম্বরে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) মাধ্যমে ৩৪টি পাবলিক ও ৭১টি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে মাদকসংক্রান্ত চিঠি পাঠায় মন্ত্রণালয়। এতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে মাদক নিয়ন্ত্রণে কমিটি গঠনের মাধ্যমে কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হয়।

বলা হয়, কমিটি শিক্ষার্থীদের কাউন্সেলিংয়ের মাধ্যমে মাদক সেবন থেকে বিরত রাখতে সচেষ্ট হবে। এ ছাড়া মাদক নিয়ন্ত্রণ ও শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখার লক্ষ্যে প্রত্যেক বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে সিসি ক্যামেরা বসানোরও নির্দেশ দেওয়া হয়। কিন্তু এই নির্দেশনা কতটুকু কাজে আসছে তা নিয়ে প্রশ্ন রয়ে গেছে।

বলাবাহুল্য, মাদক বিষে জর্জরিত হয়ে শেষ হচ্ছে বহু মেধাবী জীবন। শিক্ষাজীবন ছেড়ে অপরাধ জগতে প্রবেশ করছে অনেক মেধাবী। অকালে ঝরে পড়ছে জাতির ভবিষ্যৎ কর্ণধাররা। স্কুল থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ পর্যন্ত চলছে মাদকের ভয়াল আগ্রাসন।

সম্প্রতি কক্সবাজারে ১০২ মাদক ব্যবসায়ী আত্মসমর্পণ করেছে। আপাতদৃষ্টিতে খুশির সংবাদ হলেও এতে করে মাদকের আগ্রাসন কতটুকু কমবে তা নিয়ে সন্দিহান সচেতন মহল। কেননা শীর্ষ গডফাদাররা এখনো ধরাছোঁয়ার বাইরে। তারপরও মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধ চালিয়ে যেতে হবে। ক্যাম্পাসে মাদক নিষিদ্ধ করা এখন সময়ের দাবি।

শিক্ষার্থী, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়।