ভগ্নদশা ব্রিজটি সংস্কার করা হোক

ঢাকা, রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯ | ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

ভগ্নদশা ব্রিজটি সংস্কার করা হোক

মশিউর রহমান ক্যাপ্টেন ৯:৪৬ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৯

print
ভগ্নদশা ব্রিজটি সংস্কার করা হোক

যাত্রাপুর থেকে কুড়িগ্রাম সংযোগ সড়ক। কুড়িগ্রাম সদর উপজেলাধীন শুলকুর বাজার নামক স্থানে ছড়া নদীর ওপর নির্মিত ব্রিজটি জীর্ণ-শীর্ণ ভগ্নদশা। ব্রিজটি এমনভাবে করা হয়েছে যেখানে পাশাপাশি দুটি রিকশা চলাচল করা মহা মুশকিল। ব্রিজটি পার হতে দুপাড়ে অপেক্ষমাণ থেকে সাধারণ মানুষদের পারাপার হতে হয়। ব্রিজটির ধারণক্ষমতা বা ভারসাম্যের ওপরে ভারী যানবাহন ও ট্রাক চলাচল করে। বিশেষ কথা, সপ্তাহের শনি ও মঙ্গলবার দুদিন হাট হওয়ায় ব্রিজের ওপর অনেক বেশি চাপ পড়ে। যাত্রাপুর হাট থেকে গরু-ছাগল কিনে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পাঠানো হয়। এতে করে ব্রিজটি ভেঙে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে। ওপরের ঢালাই স্তর উঠে গিয়ে নানা স্থানে চোরা গর্ত কূপের সৃষ্টি হয়েছে। এতে করে জনসাধারণ থেকে শুরু করে হাট থেকে আসা যানবাহন নিয়ে বেশ বিপাকে পড়তে হয়। মাঝে মধ্যে দুর্ঘটনাও ঘটে। যা কখনো কারও কাম্য নয়।

ওই এলাকার গুরুত্বপূর্ণ এই ব্রিজটির দিকে যেন নজর নেই কারও। অথচ, এর ভুক্তভুগী সাধারণ মানুষ। মাঝে মধ্যেই ব্রিজ এলাকায় মানুষের ভিড় জমে যায়, বিশেষত শনিবার এবং মঙ্গলবার হাটের দিন। স্থানীয় কর্তৃপক্ষের এ নিয়ে কোন মাথা ব্যাথা নেই।

আবার ব্রিজটি সরু হওয়ায় চলাচলে মহা অসুবিধা। ব্রিজটির দুপাড়ে সতর্কীকরণ বিজ্ঞপ্তির সাইনবোর্ডেও দেওয়া আছে। ভারী যানবাহন চলাচল নিষেধ থাকলেও কে শোনে কার কথা? সব অনিয়ম যেন নিয়ম হয়ে দাঁড়িয়েছে সেখানে। তাই, ভারী যানবাহন নিয়ে চলাচলকারী কোনো বিধিনিষেধ মানছে না কেউ। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের বিশেষ দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। অচিরেই ব্রিজটি বড় করাসহ ডাবল লেনে সংস্কার করে পুনর্নির্মাণ করা হোক। এটাই এলাকাবাসীর দাবি।

মশিউর রহমান ক্যাপ্টেন
ডাক্তারপাড়া, কুড়িগ্রাম