ভূগর্ভস্থ পানি ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ প্রয়োজন

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০১৯ | ৬ আষাঢ় ১৪২৬

ভূগর্ভস্থ পানি ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ প্রয়োজন

সাঈদ চৌধুরী ৯:০৯ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ০৮, ২০১৯

print
ভূগর্ভস্থ পানি ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ প্রয়োজন

কৃষি কাজে সেচ দেওয়ার ব্যাপারে কিছু নীতিমালা থাকলেও সব জায়গায় প্রয়োগ তেমন নেই বললেই চলে। এক বিঘা খেতে কোন ফসলের জন্য কতটকু পানি প্রয়োজন, তার হিসাব জানে না কৃষকরা। ভূগর্ভ থেকে যার যেমন ইচ্ছে পানি তুলে ব্যবহার করার কারণে এখানে অপচয় অনেক। অনিয়ন্ত্রিত সার প্রয়োগ ও বিষের ব্যবহারও দূষণ ঘটাচ্ছে পানির। এ পানিগুলোও খালে গিয়ে পড়ে দূষণ ঘটাচ্ছে।

কম্পোজিট কেমিক্যালিজম পানিকে করে দিচ্ছে অধিক মাত্রার দূষিত। ফ্যাক্টরির পানির এক ধরনের উপাদান, কীটনাশকের এক ধরনের উপাদান এবং সারের আরেক ধরনের উপাদান মিলে সম্পূর্ণ নষ্ট হচ্ছে ভারসাম্য। মাটির ফাঁকা স্তরের কারণে দূষণকারী পদার্থগুলো নিম্নস্তরের প্রবেশের সম্ভাবনা আরও বেড়ে গেছে। দূষণের কারণে লবলং খালসহ গাজীপুরের প্রায় সব খালের পানিতে ব্যাঙের অস্তিত্ব এখন সম্পূর্ণ বিলীন বলা যায়।
শিল্পকারখানা বেষ্টিত এলাকাগুলোর অবস্থা সব জায়গায় একই রকম। এ কাজগুলোর জন্য এখন থেকেই ভাবতে হবে। কৃষি বিভাগ নির্দিষ্ট করে দিতে পারে কতটুকু পানি কোন ফসলের জন্য বছরের কোন সময় সর্বোচ্চ পরিমাণ ব্যবহার করতে পারবে এবং গ্রামে সেচের কাজের পাম্পগুলো মিটারের আওতায় আনাও বড় কাজ হতে পারে। সঙ্গে সেন্ট্রাল সেচ ব্যবস্থা চালুর ব্যাপারেও কাজ করতে হবে। ভূগর্ভস্থ পানির অপচয় রোধ ও দূষণ নিয়ন্ত্রণের ব্যাপারে এখন সচেতন না হলে, মিঠাপানির অভাব এক দিন আমাদের স্বাস্থ্যঝুঁকির চরম পর্যায়ে নিয়ে যাবে। বিশেষ করে শিল্প এলাকাগুলো এ ঝুঁকি এড়াতে হিমশিম খাবে। এ বিষয়ে সঠিক ও দূরদর্শী পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য কৃষি মন্ত্রণালয়, পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয় এবং পরিবেশ অধিদপ্তরের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।  

সাঈদ চৌধুরী
শ্রীপুর, গাজীপুর