দিপুর ৭ দিনের রিমান্ড চাইবে পুলিশ

ঢাকা, রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০ | ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

দিপুর ৭ দিনের রিমান্ড চাইবে পুলিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক ২:৪৩ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৭, ২০২০

print
দিপুর ৭ দিনের রিমান্ড চাইবে পুলিশ

নৌবাহিনীর লেফটেন্যান্ট ওয়াসিফ আহমেদ খানকে মারধরের ঘটনায় মামলায় গ্রেফতার সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের প্রটোকল অফিসার এবি সিদ্দিক দিপুকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে রিমান্ডে নিতে চায় পুলিশ। ২৭ অক্টোবর, মঙ্গলবার দুপুরে ধানমণ্ডি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকরাম আলী মিয়া জানান, আজ বিকেলে দিপুকে ঢাকা মুখ্য মহানগর হাকিম (সিএমএম) আদালতে তোলা হবে। এই মামলায় তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে ৭ দিনের রিমান্ড চাওয়া হবে।

 

এরআগে ২৬ অক্টোবর, সোমবার দিনগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে টাঙ্গাইল শহরে এক বন্ধুর বাড়ি থেকে দিপুকে গ্রেফতার করা হয়। এর আগে ধানমণ্ডি থানায় দায়ের করা এই মামলায় গ্রেফতার হন ইরফান সেলিম, তার দেহরক্ষী মো. জাহিদ ও গাড়িচালক মিজানুর রহমান।

উল্লেখ্য, রোববার রাতে এমপি হাজী মোহাম্মদ সেলিমের ‘সংসদ সদস্য’ লেখা সরকারি গাড়ি থেকে নেমে নৌবাহিনীর কর্মকর্তা ওয়াসিফ আহমেদ খানকে মারধর করা হয়। রাজধানীর কলাবাগান সিগন্যালের পাশে এ ঘটনা ঘটে। রাতে এ ঘটনায় জিডি হলেও আজ (সোমবার) ভোরে হাজী সেলিমের ছেলেসহ সাতজনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।

মামলার এজাহারে বলা হয়, এরফানের গাড়ি ওয়াসিফকে ধাক্কা মারার পর তিনি সড়কের পাশে মোটরসাইকেলটি থামিয়ে গাড়ির সামনে দাঁড়ান এবং নিজের পরিচয় দেন। তখন গাড়ি থেকে আসামিরা একসঙ্গে বলতে থাকেন, ‘তোর নৌবাহিনী/সেনাবাহিনী বের করতেছি, তোর লেফটেন্যান্ট/ক্যাপ্টেন বের করতেছি। তোকে এখনি মেরে ফেলব’ বলে কিল-ঘুষি মারেন এবং আমার স্ত্রীকে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করেন।