করোনার চেয়ে বেশি মৃত্যু বয়ে আনবে ক্ষুধা

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৬ আগস্ট ২০২০ | ২২ শ্রাবণ ১৪২৭

অক্সফামের প্রতিবেদন

করোনার চেয়ে বেশি মৃত্যু বয়ে আনবে ক্ষুধা

ডেস্ক রিপোর্ট ১১:০২ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ১০, ২০২০

print
করোনার চেয়ে বেশি মৃত্যু বয়ে আনবে ক্ষুধা

করোনা মহামারি শুরুর পর থেকে উৎপাদন, যোগাযোগ প্রায়ই বন্ধ রয়েছে বলা যায়। বর্তমানে বিশে^র অনেক দেশই খাদ্য আমদানির ওপর নির্ভর করছে। তবে যে সকল দেশ উৎপাদন করছে তাদের চাহিদা মিটিয়ে উদ্ধৃত্ত খাবার রপ্তানি করতে পারবে কিনা বা রপ্তানি করা যাবে কিনা সে বিষয়ে রয়েছে সন্দেহ। তাই খাবার না পেয়ে বিশ্বে প্রতিদিন ১২ হাজারের বেশি মানুষ মারা যেতে পারে, যা করোনাভাইরাসের চেয়ে বেশি মৃত্যু বয়ে আনবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করছে অক্সফাম। গতকাল বৃহস্পতিবার প্রকাশিত নতুন এক প্রতিবেদনে সংস্থাটি এ তথ্য জানিয়েছে।

করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে গত এপ্রিলে বিশ্বজুড়ে গড়ে প্রতিদিন ১০ হাজার মানুষ মারা গেছে। চলতি বছরের শেষে খাবার না পেয়ে বিশ্বে প্রতিদিন ১২ হাজারেরও বেশি মানুষ মারা যাবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে সংস্থাটি। ‘দ্য হাঙ্গার ভাইরাস’ শীর্ষক অক্সফামের ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চাকরি হারানো, খাবার উৎপাদন কমে যাওয়া ও মহামারির কারণে সহায়তা কমে যাওয়া- এসব কারণে মানুষ অনাহার পরিস্থিতিতে চলে যেতে পারে।

খাবার না পেয়ে মানুষ মারা যেতে পারে এমন ১০টি দেশ হল- ইয়েমেন, কঙ্গো, আফগানিস্তান, ভেনেজুয়েলা, পশ্চিম আফ্রিকান সাহেল, ইথিওপিয়া, দক্ষিণ সুদান, সিরিয়া, সুদান এবং হাইতি।

অক্সফামের অন্তর্বর্তীকালীন নির্বাহী পরিচালক চেমা ভেরা বলেছেন, সংঘাত, জলবায়ু পরিবর্তন, বৈষম্য এবং ভঙ্গুর খাদ্য ব্যবস্থার সঙ্গে মানুষ লড়াই করে আসছিল।

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে তাদের এই লড়াই আরও কঠিন হয়ে পড়েছে। খাদ্য উৎপাদনের সঙ্গে জড়িত ও বিশ্বের লাখ লাখ শ্রমিক কর্মহীন হয়ে পড়েছেন।

চেমা ভেরা আরও বলেছেন, বিভিন্ন দেশের সরকারকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে। সংক্রমণের ফলে কর্মহীন মানুষদের ক্ষুধা নিবারণের জন্যও পদক্ষেপ নিতে হবে। ভেরা যোগ করেন, এই ক্ষুধা সঙ্কটের অবসান ঘটাতে সরকারকে আরও শক্তিশালী এবং টেকসই খাদ্য ব্যবস্থা তৈরি করতে হবে।