কাজে ফিরছেন করোনাজয়ী ১৫৫ আনসার সদস্য

ঢাকা, শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০ | ২৭ আষাঢ় ১৪২৭

কাজে ফিরছেন করোনাজয়ী ১৫৫ আনসার সদস্য

নিজস্ব প্রতিবেদক ৬:৫৫ পূর্বাহ্ণ, জুন ০৩, ২০২০

print
কাজে ফিরছেন করোনাজয়ী ১৫৫ আনসার সদস্য

গত ২৪ ঘণ্টায় একজন আনসার কমান্ডারসহ করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের মধ্যে দেশ ও মানুষের সেবা দিতে গিয়ে বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর ৩৪৯ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তবে আক্রান্তদের সংখ্যা বাড়লেও সুস্থ হয়ে কাজে ফেরার অপেক্ষায় রয়েছেন ১৫৫ আনসার সদস্য।

এভাবে সুস্থতার হার বেড়েই চলেছে আনসারে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্তদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১৬ জন। বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সদর দফতর থেকে এসব তথ্যের পাশাপাশি আরও নিশ্চিত হওয়া গেছে, করোনা আক্রান্ত আনসার সদস্যদের চিকিৎসার সব ধরনের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর উপ-পরিচালক (যোগাযোগ) মেহেনাজ তাবাসসুম রেবিন বলেন, এখন পর্যন্ত বাহিনীর একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও বিভিন্ন পর্যায়ের ৩৪৯ জন সদস্য করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে ঢাকায় আক্রান্ত হয়েছেন ২৮৮ জন এবং ঢাকার বাইরে আক্রান্ত হয়েছেন ৬১ জন। আক্রান্তদের মধ্যে রয়েছেন বাহিনীর উপ-মহাপরিচালক একজন, ১০৪ জন ব্যাটালিয়ন আনসার, ২৩৮ জন অঙ্গীভূত আনসার, একজন বিশেষ আনসার, একজন সিগন্যাল অপারেটর, একজন নার্সিং সহকারী, দুজন মহিলা আনসার, একজন ভিডিপি সদস্য এবং একজন আনসার কমান্ডার।

উল্লেখ্য, আক্রান্তদের মধ্যে ৮১ জন ব্যাটালিয়ন আনসার জাতীয় সংসদ ভবনে এবং ১৭৮ জন অঙ্গীভূত সাধারণ আনসার ঢাকা মহানগর পুলিশের সঙ্গে কর্মরত রয়েছেন। এছাড়া বাকিদের কেউ সদর দফতর ও কেউ বিভিন্ন জেলায় কর্মরত রয়েছেন।

এদিকে করোনা আক্রান্তদের মধ্য থেকে সুস্থ ১৫৫ জনের মধ্যে ব্যাটালিয়ন আনসার সুস্থ হয়েছেন ৫৮ জন, অঙ্গীভূত সাধারণ আনসার ৯৩ জন, নার্সিং সহকারী একজন, সিগন্যাল অপারেটর একজন, ভিডিপি সদস্য একজন এবং মহিলা আনসার সুস্থ হয়েছেন একজন। করোনাযুদ্ধে জয়ী বাহিনীর এ সব সদস্য সুস্থ হয়ে যার যার কর্মস্থলে যোগদান করে আবার তাদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব ও সেবামূলক কাজ করে যাচ্ছেন।

এছাড়া বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর করোনা আক্রান্তদের। মধ্যে হোম কোয়ারেন্টিনে আছেন ১৩ জন। প্রাতিষ্ঠানিক ও বিভিন্ন আাবাসিক হোটেল কোয়ারেন্টিনে ৫৩৩ জন। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল, কুয়েত মৈত্রী হাসপাতাল, মুগদা জেনারেল হাসপাতাল, রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতাল এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ^বিদ্যালয়ে করোনা উপসর্গ নিয়ে বাহিনীর ১৭৭ জন সদস্য চিকিৎসাধীন আছেন।