এক্সিম ব্যাংকের এমডিকে গুলি, আটকে রেখে নির্যাতন

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ৯ আশ্বিন ১৪২৭

এক্সিম ব্যাংকের এমডিকে গুলি, আটকে রেখে নির্যাতন

নিজস্ব প্রতিবেদক ১২:৫২ অপরাহ্ণ, মে ২৭, ২০২০

print
এক্সিম ব্যাংকের এমডিকে গুলি, আটকে রেখে নির্যাতন

ঋণের জন্য বন্ধকি সম্পত্তির মূল্য বেশি দেখাতে রাজি না হওয়ায় এক্সিম ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মোহাম্মদ হায়দার আলী মিয়া ও অতিরিক্ত এমডি মোহাম্মদ ফিরোজ হোসেনকে গুলি করে হত্যার চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুধু তাই নয়, তাঁরা পদস্থ দুই ব্যাংক কর্মকর্তাকে বনানীর একটি বাসায় জোর করে আট রেখে নির্যাতন করেন এবং সাদা কাগজে সই নেন।

এ ঘটনায় ১৯ মে গুলশান থানায় একটি মামলাও হয়। তবে ব্যাংক কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে মঙ্গলবার মামলার বিষয়টি গণমাধ্যমে আসলে হইচই শুরু হয়।

যাদের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ তাঁরা হলেন- সিকদার গ্রুপের মালিক জয়নাল সিকদারের ছেলে এবং গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) রন হক সিকদার ও তাঁর ভাই দিপু হক সিকদার। মামলা দায়েরের পর থেকে দুই ভাই পলাতক রয়েছেন।

নির্যাতনের শিকার দুইজন হচ্ছেন এক্সিম ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মোহাম্মদ হায়দার আলী মিয়া ও অতিরিক্ত এমডি মোহাম্মদ ফিরোজ হোসেন।

মামলার ব্যাপারে জানতে চাইলে গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান জানান, বাদীর লিখিত অভিযোগ পাওয়ার পর মামলা নেওয়া হয়েছে। এই মামলার দুই আসামি পলাতক আছেন। তাঁদের পেলেই গ্রেপ্তার করা হবে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ঋণের জন্য বন্ধকী সম্পত্তির মূল্য বেশি দেখাতে রাজি না হওয়ায় ব্যাংকের এমডি মোহাম্মদ হায়দার আলী মিয়া ও অতিরিক্ত এমডি মোহাম্মদ ফিরোজ হোসেনকে গুলি করে হত্যার চেষ্টা করেন সিকদার গ্রুপের ওই দুই পরিচালক। পাশাপাশি তাদের গুলশানের একটি বাড়িতে আটকে ও নির্যাতন করে সাদা কাগজে সই নেয়া হয়েছে।

এদিকে এ ঘটনায় এক্সিম ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মোহাম্মদ হায়দার আলী মিয়ার সাথে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও পাওয়া যায়নি।