১০ টাকা কেজি চাল বিক্রির সিদ্ধান্ত

ঢাকা, শুক্রবার, ৫ জুন ২০২০ | ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭

১০ টাকা কেজি চাল বিক্রির সিদ্ধান্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক ৪:১৪ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ০১, ২০২০

print
১০ টাকা কেজি চাল বিক্রির সিদ্ধান্ত

ভয়াবহ করোনার ফলে দেশে তৈরি হওয়া বর্তমান পরিস্থিতিতে সরকার দরিদ্র ও নিম্নআয়ের মানুষের জন্য ১০ টাকা কেজি দরে খোলাবাজারে (ওএমএস) চাল বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছে। প্রাথমিকভাবে দেশের সবগুলো সিটি করপোরেশন ও পৌরসভায় এই কার্যক্রম চালু করা হবে। যতদ্রুত সম্ভব এই কার্যক্রম চালু হবে বলে খাদ্য অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সারাদেশে অঘোষিত লকডাউনের কারণে সবচেয়ে বেশি সংকটে আছে নিম্নআয়ের দরিদ্র ও দিনমজুর মানুষেরা। এই অবস্থায় দরিদ্র জনগোষ্ঠীর কোন মানুষ যেন অভুক্ত না থাকে সে লক্ষ্যে সরকার ওএমএস চালুর এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

মঙ্গলবার খাদ্য অধিদফতরকে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে বলা হয়েছে। জানা গেছে, নির্দেশনা পাওয়ার প্রকৃত উপকারভোগীদের কাছে চাল পৌঁছানোর কর্মকৌশল ঠিক করছে খাদ্য অধিদফতর।

এখন জেলা প্রশাসন, সিটি করপোরেশন, ত্রাণ মন্ত্রণালয়, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়সহ বিভিন্ন ব্যক্তি উদ্যোগের ত্রাণ কার্যক্রম চলছে। এসব ত্রাণ যারা পাচ্ছেন তাদের বাইরে যারা আছেন সেই লোকজনকে টার্গেট করে ওএমএস চালু করা হবে যাতে একই ব্যক্তি যেন বার বার সুবিধা না পান এবং কেউ যেন বাদ না পড়ে।

সূত্র জানায়, আগামি সপ্তাহে ডিলারদের মাধ্যমে ওএমএস কার্যক্রম চালু হতে পারে। বর্তমানে ওমএসএস’র মাধ্যমে ৩২ টাকা কেজি দরে চাল ও ১৮ টাকা কেজি দরে আটা বিক্রি করা হচ্ছে। কিন্তু বাজারে মোটা চালের স্বাভাবিক দাম ও ওএমএসের চালের দাম প্রায় সমান হওয়া গত বেশ কিছুদিন ধরে ওএমএস- এ চাল বিক্রি বন্ধ রয়েছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, ১০ টাকা কেজি দরে ওএমএস কার্যক্রম চালু করার আগে তারা কর্মকৌশল ঠিক করছেন, এতে একই ব্যক্তি একাধিকবার লাইনে না দাঁড়ায় তা নিশ্চিত করা হবে।