জনশুমারিতে থাকছেন প্রবাসী ও বিদেশিরা

ঢাকা, শনিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১৭ ফাল্গুন ১৪২৬

জনশুমারিতে থাকছেন প্রবাসী ও বিদেশিরা

নিজস্ব প্রতিবেদক ১০:১৬ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২৩, ২০২০

print
জনশুমারিতে থাকছেন প্রবাসী ও বিদেশিরা

জনশুমারিতে গণনার আওতায় আসছেন প্রবাসী বাংলাদেশি এবং দেশে অবস্থানকারী বিদেশিরা। আগামী বছরের ২ জানুয়ারি দেশের ৬ষ্ঠ জনশুমারি ও গৃহগণনা শুরু হয়ে চলবে ৮ জানুয়ারি পর্যন্ত। এছাড়া বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষকে স্মরণীয় করে রাখতে চলতি বছরের ১৭ মার্চ থেকে জনশুমারির ক্ষণগণনা শুরু হবে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস) আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় এসব বিষয়ে জানানো হয়। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। বিশেষ অতিথি ছিলেন পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব সৌরেন্দ্র নাথ চক্রবর্তী এবং বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর মহাপরিচালক তাজুল ইসলাম।

এছাড়াও বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর পরিচালক (জনশুমারি) জাহিদুল হক সরদারসহ পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগ এবং পরিসংখ্যান ব্যুরোর ঊর্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর পরিচালক (জনশুমারি) জাহিদুল হক সরদার জনশুমারি সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন। তিনি জানান, আগামী বছরের ২ জানুয়ারি থেকে ৮ জানুয়ারি পর্যন্ত দেশের ৬ষ্ঠ জনশুমারি ও গৃহগণনা পরিচালিত হবে। এ প্রকল্পের আওতায় প্রস্তুতিমূলক কার্যক্রম হিসেবে আগামী মাসে মোবাইল আবেদনের মাধ্যমে দেশব্যাপী খানা তালিকা প্রণয়ন কার্যক্রম শুরু হবে।

জাহিদুল হক বলেন, এবারই প্রথম জনশুমারিতে বিদেশে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশি এবং দেশে অবস্থানকারী বিদেশিদের গণনা করবে সরকার। প্রবাসীদের ভোটার বানানো এবং দেশে অবৈধ বিদেশিদের বেআইনি কার্যক্রম বন্ধ করতে এই উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, এবার জরিপের আগে বাড়ি বাড়ি গিয়ে তালিকা করা হবে, যাতে তথ্য ভুল না হয়। গণনাকারীদের মাধ্যমে তথ্য সংগ্রহের পাশাপাশি টেলিফোন, মোবাইল, এবং ই-মেইলে যে কেউ নিজেকে তথ্য শুমারিতে অন্তর্ভুক্ত করতে পারবেন।

পরিসংখ্যান বিভাগের সচিব সৌরেন্দ্র নাথ চক্রবর্তী বলেন, সরকারের উন্নয়ন পরিকল্পনা পরিবীক্ষণ ও গুরুত্বপুর্ণ উন্নয়ণ কর্মসূচি গ্রহণে জনশুমারির তথ্য অত্যন্ত গুরুত্বপুর্ণ ভূমিকা পালন করবে। তিনি বলেন, আগে বিবিএসকে একটি মাথা গোনা প্রতিষ্ঠান হিসেবে বিবেচনা করা হতো। কিন্তু এখন সেই ধারণার পরিবর্তন হয়েছে।