১৮ দিনে সৌদি থেকে ফিরেছে ১৮৩৪ শ্রমিক

ঢাকা, বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ | ১৪ ফাল্গুন ১৪২৬

১৮ দিনে সৌদি থেকে ফিরেছে ১৮৩৪ শ্রমিক

নিজস্ব প্রতিবেদক ৯:৪৩ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৯, ২০২০

print
১৮ দিনে সৌদি থেকে ফিরেছে ১৮৩৪ শ্রমিক

বাংলাদেশের সবচেয়ে বেশি জনশক্তি রপ্তানি হয় সৌদি আরবে। তবে দেশটি থেকে প্রতিদিনই শ্রমিক ফিরছে। এদের মধ্যে কেউ ফিরছেন কাজের মেয়াদ শেষ হওয়ায়, কেউবা অবৈধভাবে গিয়ে ধরা পড়ে, কেউ আবার ফিরছেন দালালের খপ্পরে পড়ে কাজের গরমিলের জন্য। কিন্তু এদের পাশাপাশি বৈধভাবে কাজে যুক্ত থেকে ফিরে আসার সংখ্যাও কম নয়।

নতুন বছরের গেল ১৮ দিনে সৌদি আরব পুলিশি অভিযান চালিয়ে ১৮৩৪ জন শ্রমিককে দেশে ফেরত পাঠিয়েছে। এদের মধ্যে সর্বশেষ গত শনিবার রাতে ফিরেছে ২২৪ জন শ্রমিক।

মোটা অংকের টাকা খরচ করে ভাগ্য বদলের আশায় স্বপ্নের দেশ সৌদি আরবে কাজের উদ্দেশে গেলেও এখন সেসব শ্রমিক ফিরছেন শূন্য হাতে। বেসকারি সংস্থা ব্র্যাকের অভিবাসন প্রকল্প সূত্র জানিয়েছে, গত শনিবার রাতে সৌদি এয়ারলাইন্সের এসভি ৮০৪ বিমানযোগে ১০৮ কর্মী দেশে ফেরেন।

এর আগে ওইদিন দুপুরে সৌদি এয়ারলাইন্সের এসভি ৮০৮ বিমান যোগে জেদ্দা থেকে ফেরেন আরও ১১৬ জন। এ নিয়ে চলতি বছরের ১৮ দিনে এক হাজার ৮৩৪ জন বাংলাদেশি সৌদি আরব থেকে ফিরলেন। প্রবাসী কল্যাণ ডেস্কের সহযোগিতায় বরাবরের মতো গতকালও ফেরত আসাদের ব্র্যাক মাইগ্রেশন প্রোগ্রাম থেকে জরুরি সহায়তা দেওয়া হয়েছে।

সৌদি আরব থেকে ফিরে আসা শ্রমিকদের অভিযোগ তাদের কাজের মেয়াদ শেষ হলেও ফেরত পাঠাচ্ছে আবার মেয়াদ থাকলেও পাঠাচ্ছে। বরিশাল জেলার আগৈলঝাড়া উপজেলার শামিম (৩০) জানান, মাত্র তিন মাস আগে তিন লাখ টাকা খরচ করে সৌদি আরব গিয়েছিলেন ড্রাইভিং ভিসা নিয়ে। সেখানে দুই মাস কাজ করলেও কোনো বেতন পাননি তিনি।