না ফেরার দেশে দগ্ধ আরও ৩ জন

ঢাকা, রবিবার, ২ অক্টোবর ২০২২ | ১৭ আশ্বিন ১৪২৯

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

কেরানীগঞ্জে আগুন

না ফেরার দেশে দগ্ধ আরও ৩ জন

নিজস্ব প্রতিবেদক
🕐 ১:২৮ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৫, ২০১৯

না ফেরার দেশে দগ্ধ আরও ৩ জন

ঢাকার কেরানীগঞ্জের চুনকুটিয়া এলাকায় অবস্থিত ‘প্রাইম পেট অ্যান্ড প্লাস্টিক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড’র প্লাস্টিকসামগ্রী তৈরি কারখানায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ আরও তিনজন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। এ নিয়ে এই ঘটনায় ১৭ জন মারা গেলেন।

রোববার সকালে শেখ হাসিনা বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় এই তিনজনের মৃত্যু হয়।

সবশেষ মারা যাওয়া তিনজন হলেন রাজ্জাক (৪৫), মোসতাকিন (২৩) ও আবু সাঈদ (২০)।

রাজ্জাকের বাড়ি কেরানীগঞ্জের চুনকুটিয়ায়। মোসতাকিনের বাড়ি রাজশাহীর তানোর উপজেলায়। সাঈদের বাড়ির ঠিকানা তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

ইনস্টিটিউটের আবাসিক চিকিৎসক পার্থ শংকর পাল এই তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, সকাল সাড়ে ৭টার দিকে মারা যান রাজ্জাক। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মারা যান মোসতাকিন। আর আবু সাঈদ মারা যান দুপুর পৌনে ১২টার দিকে।

আগুনে দগ্ধ ৯ জন আইসিইউতে লাইফ সাপোর্টে ছিলেন। ৩ জন মারা যাওয়ার পর এখন ৬ জন লাইফ সাপোর্টে রয়েছেন। এছাড়া ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ৮ জন ভর্তি রয়েছেন।

এর আগে বুধবার বিকাল সোয়া ৪টার দিকে কেরানীগঞ্জের চুনকুটিয়া এলাকার প্রাইম পেট অ্যান্ড প্লাস্টিক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের কারখানায় আগুন লাগে। ঘটনার সময় শ্রমিকরা কাজ করছিলেন। তখন হঠাৎই গ্যাস রুম থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়।

এতে ঘটনাস্থলেই অগ্নিদগ্ধ হয়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে। দগ্ধ আরও অন্তত ৩২ জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। পরে তাদের মধ্যে আরও ১৭ জনের মৃত্যু হলো।

চিকিৎসকেরা বলছেন, দগ্ধ লোকজনের মধ্যে অনেকের অবস্থাই আশঙ্কাজনক।

 
Electronic Paper