হাসপাতাল থেকে সরাসরি সংসদে গেলেন অর্থমন্ত্রী

ঢাকা, বুধবার, ২৬ জুন ২০১৯ | ১২ আষাঢ় ১৪২৬

হাসপাতাল থেকে সরাসরি সংসদে গেলেন অর্থমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক ১:৪৮ অপরাহ্ণ, জুন ১৩, ২০১৯

print
হাসপাতাল থেকে সরাসরি সংসদে গেলেন অর্থমন্ত্রী

মেডিকেল চেকআপের জন্য রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতাল থেকে সরাসরি বাজেট অধিবেশনে যোগ দিচ্ছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। বৃহস্পতিবার (১৩ জুন) দুপুর সাড়ে ১২টায় অর্থমন্ত্রী ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট উপস্থাপনের জন্য সংসদের উদ্দেশে রওনা দেওয়ার কথা নিশ্চিত করেছেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা গাজী তৌহিদুল ইসলাম।

বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, তিনি জ্বরে আক্রান্ত। এছাড়া গত কয়েকদিন ধরে রুটিন মেডিকেল চেকআপের জন্য অ্যাপোলো হাসপাতালে যাচ্ছেন অর্থমন্ত্রী। বুধবার রাত থেকে তিনি হাসপাতালে ছিলেন। সেখান থেকেই সরাসরি সংসদে গেলেন।

এর আগে মঙ্গলবার (১১ জুন) সন্ধ্যায় রুটিন মেডিকেল চেকআপের জন্য অ্যাপোলো হাসপাতালে গিয়েছিলেন অর্থমন্ত্রী মুস্তফা কামাল। পরে চেকআপ শেষে বাড়ি ফিরে যান তিনি।

প্রসঙ্গত, আওয়ামী লীগ সরকারের গত মেয়াদে পাঁচ বছর পরিকল্পনামন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করলেও এবার অর্থমন্ত্রী হিসেবে প্রথম বাজেট পেশ করতে যাচ্ছেন তিনি।

১৯৪৭ সালের ১৫ জুন কুমিল্লার লালমাই উপজেলার বাগমারা ইউনিয়নের দুতিয়াপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। মুস্তফা কামালের বাবার নাম বাবরু মিয়া। মাতা মরহুমা সায়রা বেগম। তিন ভাই ও এক বোনের মধ্যে তিনি দ্বিতীয়।

তার পুরো নাম আ হ ম মুস্তফা কামাল। তবে লোটাস কামাল নামেই বেশি পরিচিত তিনি। পাশাপাশি ক্রিকেট সংগঠক হিসেবে এবং একজন খ্যাতনামা চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্ট হিসেবেও তার সমান জনপ্রিয়তা রয়েছে।

শিক্ষাজীবনে তিনি ছিলেন বেশ মেধাবী। ১৯৬২ সালে এসএসসি এবং কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ থেকে এইচএসসি সম্পন্ন করেন। ১৯৬৪-৬৭ বর্ষে চট্টগ্রাম সরকারি কমার্স কলেজ থেকে বিকম ডিগ্রি লাভ করেন। পরবর্তীতে ১৯৬৭ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক ও ১৯৬৮ সালে অ্যাকাউন্টিং এ স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন।

মেধাবী কামাল ১৯৭০ সালে তদানীন্তন পাকিস্তানে (পূর্ব এবং পশ্চিম পাকিস্তান) চার্টার্ড অ্যাকাউনটেন্সি পরীক্ষায় মেধা তালিকায় সম্মিলিতভাবে প্রথম স্থান অর্জন করে ‘লোটাস’ উপাধি পান। এছাড়া আইন শাস্ত্রেও তিনি স্নাতক ডিগ্রির অধিকারী।

রাজনীতিতে তার হাতেখড়ি ছাত্রজীবন থেকেই। ১৯৬৬ সালের ৬ দফা আন্দোলন থেকে শুরু করে ৬৯ এর গণঅভ্যুত্থান এবং ৭০ এর ঐতিহাসিক নির্বাচনে ছিল তার অবদান। তিনি আওয়ামী লীগ থেকে ১৯৯৬ সালে কুমিল্লা-৯ আসনে প্রথমবারের মত সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন। সবশেষ কুমিল্লা-১০ আসন থেকে চতুর্থবারের মতো সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন তিনি।

ক্রিকেট সংগঠক হিসেবেও মুস্তফা কামালের রয়েছে সমান পরিচিতি। ২০০৯ থেকে ২০১৩ সালের মধ্যে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি হিসেবে দায়িত্বপালন করেন। ২০১৪-১৫ মেয়াদে আইসিসির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন তিনি।