ইন্সপেকশন না থাকলে দুর্ঘটনা রোধ সম্ভব নয়

ঢাকা, বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ | ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

ইন্সপেকশন না থাকলে দুর্ঘটনা রোধ সম্ভব নয়

আলী আহাম্মেদ খান ১০:৩৫ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৮

print
ইন্সপেকশন না থাকলে দুর্ঘটনা রোধ সম্ভব নয়

নিম্নমানের সিলিন্ডার ও গ্যাস ব্যবহারের ত্রুটিপূর্ণ যন্ত্রপাতির কারণে বেশিরভাগ দুর্ঘটনা ঘটছে। বিভিন্ন সময় দেখা যায় ঘরের ভেতর রাখা সিলিন্ডার লিকেজ (ছিদ্র) হয়ে পুরো ঘর গ্যাসে পরিপূর্ণ হয়ে যায় এবং দেশলাই বা কোনো দাহ্য বস্তুর সংস্পর্শে আসার সঙ্গে সঙ্গেই আগুন ধরে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটে। এসব দুর্ঘটনায় প্রাণহানির মতো ঘটনা ঘটছে অহরহ।

গ্যাসের চাপে সাধারণত এলপিজি গ্যাস সিলিন্ডারে বিস্ফোরণ ঘটে না। সাধারণত বদ্ধ ঘরে গ্যাস লিকেজ হয়ে যখন আগুন ধরে যায় তখন সেই আগুনেই সিলিন্ডারের বিস্ফোরণ ঘটে। নিম্নমানের গ্যাসের সরঞ্জাম ও পুরনো যন্ত্রপাতি ব্যবহারেই বাড়ছে মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনা।

মানুষের মাঝে সচেতনতার অভাব কিংবা গ্যাস সিলিন্ডার, চুলা ব্যবহারের অজ্ঞতার কারণেই বিপদে পড়ছে মানুষ। তা ছাড়া ইন্সপেশনের জন্য সঠিক কোনো দিকনির্দেশনা নেই কোনো সংস্থার। এ ব্যাপারে সঠিক দিকনির্দেশনা ও ইন্সপেকশন না থাকলে দুর্ঘটনা রোধ করা সম্ভব নয়।

প্রতিটি নাগরিকেই গ্যাস ব্যবহারে সচেতন হতে হবে। তা ছাড়া গ্যাস কোম্পানি থেকে শুরু করে সাপ্লাইয়ারদের প্রশিক্ষণের আওতায় নিয়ে আসতে হবে। গ্যাসের সিলিন্ডার ঘরের ভেতর না রেখে বাইরে রাখতে হবে। বদ্ধ ঘরে গ্যাসের গন্ধ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই আগুন জ্বালানো থেকে বিরত থাকা ও ঘরের জানালা খুলে দিয়ে গ্যাস বের হওয়ার সুযোগ করে দিতে হবে। গ্যাস লাইন মাঝে মধ্যে পরীক্ষা করেও দেখতে হবে সেখানে কোনো ত্রুটি আছে কি না। গ্যাস ব্যবহারে বিভিন্ন মিডিয়ায় সচেতনতামূলক অনুষ্ঠান প্রচার করতে হবে যাতে মানুষ সচেতন হতে পারে।

ডিজি, ফায়ার সার্ভিস