ঢাকা, বুধবার, ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ | ১৮ মাঘ ১৪২৯

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

বিএনপি ১০ ডিসেম্বর কে কেন বেছে নিল : কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক
🕐 ৪:২৭ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৩০, ২০২২

বিএনপি  ১০ ডিসেম্বর কে কেন বেছে নিল : কাদের


বিএনপি সমাবেশ ঘিরে আন্দোলনের নামে যদি সহিংসতার উপাদান যুক্ত করে, তাহলে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আওয়ামী লীগ সমুচিত জবাব দেবে। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের আজ বুধবার সচিবালয়ে ব্রিফিংকালে বিএনপির উদ্দেশে এসব কথা বলেন।

বিএনপি কেন সমাবেশের জন্য ১০ ডিসেম্বর বেছে নিয়েছে, সে প্রশ্ন তোলেন ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, বিএনপি কি জানে না বাংলাদেশের ইতিহাস? ১৯৭১ সালের ১০ ডিসেম্বর বুদ্ধিজীবী হত্যার নীলনকশা বাস্তবায়নের প্রক্রিয়া শুরু হয়। ১০ ডিসেম্বর সিরাজ উদ্দিন হোসেন ও সাংবাদিক সৈয়দ নাজমুল হককে পাকিস্তান সেনাবাহিনী দেশের আলবদর বাহিনীর সহায়তা উঠিয়ে নিয়ে যায়।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ১০ থেকে ১৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত এ বুদ্ধিজীবী হত্যার মতো নৃশংসতম ঘটনা বাংলাদেশে সংগঠিত হয়। জ্ঞানগরিমা যাদের ঘিরে, সেই সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব, সাংবাদিক, চিকিৎসকদের ধরে নিয়ে হত্যার কথা স্মরণ করিয়ে তিনি বলেন, ১০ ডিসেম্বর সমাবেশের জন্য কেন বিএনপি বেছে নিল, এটাই প্রশ্ন?

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে কেন বিএনপি যেতে চায় না, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে পাকিস্তান সেনাবাহিনী আত্মসমর্পণ করে, ১৯৭১ সালে ৭ মার্চের ভাষণ বিএনপির পছন্দ না–ও হতে পারে। যদিও জাতিসংঘ স্বীকৃতি দিয়েছে সর্বকালের সেরা ভাষণ হিসেবে। বিএনপি সমাবেশ ঘিরে আন্দোলনের নামে যদি সহিংসতার উপাদান যুক্ত করে, তাহলে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আওয়ামী লীগ সমুচিত জবাব দেবে।

সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ঐতিহাসিক স্থান, যেখানে স্বাধীনতা, মুক্তিযুদ্ধ, ১৬ ডিসেম্বর যাঁরা বিশ্বাস করে, সেখানে পাকিস্তান মিত্রবাহিনীর কাছে আত্মসমর্পণ করেছে—সেই সোহরাওয়ার্দী উদ্যান কেন বিএনপির অপছন্দ, তা জানতে চেয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ঐতিহাসিক উদ্যান। বিশাল জায়গা এখানে, আওয়ামী লীগ সব সমাবেশ, জাতীয় সম্মেলন করে এখানে।

তাহলে বিএনপি কেন তাদের পার্টি অফিসের সামনে ছোট এলাকা (যেখানে ৩৫ হাজার স্কয়ার ফুটের মতো একটা ছোট জায়গায়) সমাবেশের জন্য বেছে নিল, প্রশ্ন ওবায়দুল কাদেরের।

তিনি বলেন, পার্টি অফিসে সমাবেশ করার জন্য বিএনপির এত দৃঢ়তা কেন? এখানে তাদের কি কোনো বদ উদ্দেশ্য আছে? আওয়ামী লীগ সতর্ক পাহারায় থাকবে বলেও জানান ওবায়দুল কাদের।

 
Electronic Paper