একটি তর্জনীর নির্দেশে বাংলাদেশ

ঢাকা, শুক্রবার, ১০ এপ্রিল ২০২০ | ২৭ চৈত্র ১৪২৬

একটি তর্জনীর নির্দেশে বাংলাদেশ

সাকিব জামাল ১:২৫ অপরাহ্ণ, মার্চ ১৩, ২০২০

print
একটি তর্জনীর নির্দেশে বাংলাদেশ

তখন সাত কোটি মানুষের মনে জ্বলছিল সুপ্ত আগ্নেয়গিরির আগুন।
চোখে বিদ্রোহী ফাগুন। বজ্রমুষ্টিবদ্ধ হাত। কণ্ঠে স্বাধীন সুরের গুনগুন।

পাকিস্তানিদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ, নির্যাতিত, ক্লান্ত- সকল বাঙালি বুক ভরা আশায়-

সামাজিক, রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক আর অর্থনৈতিক মুক্তির প্রত্যাশায়-
বঙ্গবন্ধুর একটি তর্জনীর নির্দেশের অপেক্ষায়-
তাৎক্ষণিক সাড়া দিতে- সদা জাগ্রত অতন্দ্র প্রহরায়।

৭ মার্চ ১৯৭১, রেসকোর্স ময়দান, ঢাকা।
পুরো ময়দান জনসমুদ্র। উৎসুক সব চোখ-
বঙ্গবন্ধুর একটি তর্জনীর নির্দেশের অপেক্ষায়-
নেতা এলেন, আঙুল উঁচিয়ে বললেন-
‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম,
এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম
জয় বাংলা’।

এরপর, ৯ মাস
নতুন ইতিহাস!

একটি তর্জনীর নির্দেশে- একটি যুদ্ধ।
একটি তর্জনীর নির্দেশে- একটি বিজয়।
একটি তর্জনীর নির্দেশে- একটি পতাকা।
একটি তর্জনীর নির্দেশে- একটি জাতি।
একটি তর্জনীর নির্দেশে- একটি মানচিত্র।
একটি তর্জনীর নির্দেশে- একটি বাংলাদেশ।

এবার আমার কথা বলি-
যতবার ৭ মার্চের ভাষণ শুনেছি-
ততবারই কল্পনায় রেসকোর্স ময়দানের জনতা হয়েছি!
এ প্রজন্মের এ আমি কৃতজ্ঞ সদা
বঙ্গবন্ধুর একটি তর্জনীর নির্দেশে-
জন্মেই পেয়েছি প্রিয় বাংলাদেশ, প্রিয় স্বাধীনতা।