নিঃসঙ্গ এক পরিব্রাজক

ঢাকা, শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৫ আশ্বিন ১৪২৬

নিঃসঙ্গ এক পরিব্রাজক

সোহরাব পাশা ৪:৪১ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩০, ২০১৯

print
নিঃসঙ্গ এক পরিব্রাজক

জীবনানন্দ তো ফিরে গেছে কালরাতে
পড়ে আছে-‘কুয়াশা কেবল’-ঝরাপাতা
‘যে কবি পেয়েছে শুধু যন্ত্রণার বিষ
শুধু জেনেছে বিষাদ।’

 

ম্লান সন্ধ্যায় শূন্য মেঘবাড়ি থেকে বেরুনোর সময় ওর
হাতভর্তি ছিল তীব্র বিষাদের করুণ ধূসর
পাণ্ডলিপি
গভীর বিশ্বাস আছে মানুষের কাছে-
‘জীবনানন্দের আর এক নাম কবিতা’
সব বাড়িতেই হেঁটে গেছে ওর কবিতা
নানা বর্ণিল গুঞ্জনে মুখরিত এপাড়া-ওপাড়া
যিনি যাপন করেন আগুনের বিষণ্ন প্রহর

পৃথিবীর জটিল দীর্ঘ গল্প লেখা আকাশ ছিল
তার নিভৃতির চন্দ্রকান্ত গূঢ় জ্যামিতিক চোখে
জোছনা ও রোদ্দুর ভেজা

বৃষ্টির ঘ্রাণে বিহ্বল হৃদয় খুঁজেছে
জীবনের ভেতরে আরও এক গহিন জীবন,
বেদনার মতো শব্দ শূন্য নীল কষ্ট-অশ্রুধ্বনি
চারপাশে অবিশ^স্ত, আঙ্গুলের স্পর্শ
নিবিড় আড়াল প্রিয়-

‘অদ্ভুত আঁধারে’ জীবনের কোলাহলে-অপ্রাপ্তির
নিঃস্ব-ক্লান্ত এক নিসঙ্গ পরিব্রাজক।