প্রেম

ঢাকা, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৯ | ৬ বৈশাখ ১৪২৬

প্রেম

চন্দন চৌধুরী ২:৩৯ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১২, ২০১৯

print
প্রেম

এক ছিল রাজকুমারী। অনেকেই তাকে বিয়ে করতে চাইত। বিয়ের বার্তা নিয়ে এলেন ভিন দেশের এক রাজকুমার। বিশাল রাজ্য। অনেক নাম-ডাক রাজকুমারের। রাজকুমারীর পিতা এতে রাজি হয়ে গেলেন। অতিথি কক্ষে থাকতে দিলেন রাজকুমারকে। কিন্তু প্রথম দেখায় রাজকুমারকে বিশেষ একটা ভালো লাগল না রাজকুমারীর। এক দিন ডেকে বললেন, ‘আমাকে আপনি সাতটি টিয়া এনে দেবেন?’

 

কী জন্য বা কেন, এসব জিজ্ঞেস না করে সাতটি সুন্দর টিয়া উপহার দিলেন রাজকুমার। রাজকুমারের মন ভালো হয়ে গেল, ভাবল তাকে হয়তো পছন্দ করেছে রাজকুমারী। রাতে ভালো ঘুম হলো। স্বপ্নও দেখলেন। কিন্তু সকালে দরজার সামনে তার দেয়া টিয়াগুলোর একটির মৃতদেহ দেখতে পেলেন। ভড়কে গেলেন রাজকুমার। ঠিক বুঝতে পারলেন না। বিষয়টি তিনি চেপে গেলেন সবার কাছে। দ্বিতীয় দিন সকালে আরেকটি। তৃতীয় দিন আরেকটি। তারপরের দিন। তার পরের দিনও। যতবারই তিনি মৃত টিয়াগুলোকে দেখেন ততবারই মনে হয় রাজকুমারী তাকেই গলাটিপে হত্যা করছে। অনেক ভেবেচিন্তে রাজকুমারীর সঙ্গে দেখা করার অনুমতি চাইলেন রাজকুমার। দেখা হলো রাজকুমারীর সঙ্গে। রাজকুমার বললেন, ‘আজই আমি চলে যাচ্ছি। কিন্তু আপনার কাছে একটা চাওয়া আছে আমার।’

রাজকুমারী জানতে চাইলেন, ‘কী চাওয়া?’

রাজকুমার বললেন, ‘আপনার কাছে এখনো দুটো টিয়া আছে। সেখান থেকে একটা আমার চাই।’
রাজকুমারীর কথায় একটা টিয়া নিয়ে এলো দাসী। খাঁচাটি হাতে নিয়ে রাজকুমার বলল, ‘এই যে টিয়াটা নিয়ে যাচ্ছি। একে আমি খুব যত্ন করে রাখব। মনে করব এটাই আপনি। আর যে টিয়াপাখিটা রয়ে গেল। মনে করব ওটা আমি। ওই আমিটাকে আমি আপনার কাছে রেখে গেলাম।’