হাল ফ্যাশনে টি শার্ট

ঢাকা, শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯ | ২ কার্তিক ১৪২৬

হাল ফ্যাশনে টি শার্ট

হালরং ডেস্ক ১:৩৩ অপরাহ্ণ, জুলাই ০১, ২০১৯

print
হাল ফ্যাশনে টি শার্ট

মেয়েদের পাশাপাশি ছেলেরাও এখন ফ্যাশন নিয়ে সমান আগ্রহী। ফ্যাশন ডিজাইনাররা বলেন, আবহাওয়ার মেজাজ বুঝে পোশাকের ধরন ঠিক করা উচিত। অস্থির গরম, হঠাৎ বৃষ্টি আর মেঘের নানারকম খেলার মাঝেই এখন সময় পার হচ্ছে। গরম আর বৃষ্টির এই সময়টাতে তরুণরা ঝুঁকছেন জিন্স-টি-শার্টের দিকে।

দেশে রোদের তীব্রতা বেড়েই চলেছে। রোদের তীব্রতায় নাগরিক জীবনে স্বস্তির পথ খুঁজে ফেরে। আর তাই স্বস্তি মেটাতে, তরুণ-তরুণীর জন্য বাজারে এসেছে সময় উপযোগী নান্দনিক সব টি-শার্ট। টি-শার্ট সময়ের কথা বলে। আজকাল আমাদের জাতীয় জীবনে বিশেষ দিনগুলোসহ আমাদের সংস্কৃতিকে নানাভাবে তুলে ধরা হয় টি-শার্টে। সব মিলিয়ে হাল ফ্যাশনে টি-শার্টের গুরুত্ব অনেক। শুধু আরামদায়ক পোশাক হিসেবেই নয়, আমাদের চলতি ফ্যাশনের অংশ হিসেবেও টি-শার্ট তরুণ-তরুণীদের কাছে পছন্দের পোশাক। 

বর্তমান সময়ের ট্রেন্ড হলো টি-শার্ট। পরনে ন্যারো জিন্স সেই সঙ্গে মানানসই টি-শার্ট এটাই হলো সময়ের স্টাইল। আবার শুধু তরুণরাই নয়, টি-শার্ট ব্যবহারে পিছিয়ে নেই তরুণীরাও। বিশেষ করে কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া তরুণীরা জিন্স, টি-শার্টের সঙ্গে জড়িয়ে নিচ্ছেন রঙ-বেরঙের স্কার্ফ। আর এটাই যেন হয়েছে বর্তমানের ট্রেন্ড। টি-শার্ট সময়ের কথা বলে অর্থাৎ আমাদের জাতীয় জীবনের বিশেষ দিনগুলোসহ আমাদের সংস্কৃতিকে নানাভাবে তুলে ধরা হয় টি-শার্টে। আর এ জন্যই সচেতন নাগরিকের কাছে টি-শার্টের গ্রহণযোগ্যতা বাড়ছে।

টি-শার্ট যেন তারুণ্যের গান গায়। বাংলা সাহিত্যের বিখ্যাত সব কবি-সাহিত্যিকের লেখা গান, কবিতা, বিভিন্ন শিল্পকর্মসহ আমাদের সংস্কৃতির নানা দিক বুকে ধারণ করার যেন পণ করেছে বর্তমান প্রজন্ম। তাই তো স্কুল-কলেজে, বন্ধুদের আড্ডা বা যে কোনো ক্যাজুয়াল ড্রেসআপে তরুণদের প্রথম পছন্দ টি-শার্ট। টি-শার্টে ভিন্ন মাত্রা এনেছে দেশি ফ্যাশন হাউসগুলো। টি-শার্টের আজকের এই জনপ্রিয়তার পেছনে বড় ভূমিকা রেখেছে দেশি ফ্যাশন হাউসগুলো। টি-শার্টকে তার চিরচেনা গণ্ডি থেকে বের করে ভিন্ন মাত্রা যোগ করেছেন ডিজাইনাররা। এভাবেই টি-শার্টের দিবসভিত্তিক উপস্থাপন আমাদের মধ্যে স্বদেশপ্রেম জাগ্রত করে। এখন যেহেতু গরম, তাই হাফ হাতা টি-শার্টই বেশি চলছে।

টি-শার্টের রঙ বাছাই নিয়ে ঝামেলা কিছু নেই। রোদ-বাদলের এই সময়ে যেহেতু গরমটাই বেশি, তাই নির্দ্বিধায় কালো রঙকে বাদ দেওয়াই যায়। কারণ, কালো রং বেশি তাপ শোষণ করে। এ সময় উজ্জ্বল ও শুভ্র রংগুলো সবার পছন্দ। আর তাই এই সময়ে হালকা উজ্জ্বল রঙের টি-শার্ট বেছে নেওয়া ভালো। ফেব্রিক হালকা হলে সহজে বাতাস চলাচল করতে পারে। তাই ক্লান্তি আসে না। কালো বাদ দিয়ে হোয়াইট, ব্লু, ডার্ক ব্লু, রেড, ডার্ক রেড, গ্রিন, বটল গ্রিন, মেরুন, অফ-হোয়াইট, ইয়োলো, ফিরোজা, রোজ ইত্যাদি কালার সহজেই বেছে নিতে পারেন। তবে এই পোশাকটির ক্ষেত্রে সবচেয়ে জরুরি ঠিকঠাক মাপের হওয়া।

সঠিক সাইজের টি-শার্ট কিংবা পলোর টি-শার্টের হদিস না পাওয়া গেলে গরমের এই সময়টায় আরাম হারাম হওয়ার জোগাড়। বর্তমানে দেশি ফ্যাশন হাউসগুলোর মধ্যে রঙ বাংলাদেশ নিত্য উপহার, তারা মার্কা, কে-ক্রাফট, আড়ং, যাত্রা, অঞ্জন্স, ভিসা, দেশালসহ বিভিন্ন ফ্যাশন হাউসে হরেক রকম নিত্যনতুন ডিজাইনের টি-শার্ট পাওয়া যাচ্ছে। দাম প্রকারভেদে ৮০০ থেকে ৩০০০ টাকার মধ্যে।