১৩ বছরের সাজায় হাজী সেলিমের আপিলের রায় ৯ মার্চ

ঢাকা, সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১ | ৬ বৈশাখ ১৪২৮

১৩ বছরের সাজায় হাজী সেলিমের আপিলের রায় ৯ মার্চ

নিজস্ব প্রতিবেদক ৭:১২ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০২১

print
১৩ বছরের সাজায় হাজী সেলিমের আপিলের রায় ৯ মার্চ

অবৈধ সম্পদ অর্জনের দায়ে নিন্ম আদালতের দেওয়া ১৩ বছর কারাদণ্ডের বিরুদ্ধে সরকারি দলের সংসদ সদস্য (এমপি) হাজী মোহাম্মদ সেলিমের আপিলের পুনঃশুনানি শেষ হয়েছে। রায়ের জন্য আগামী ৯ মার্চ দিন ধার্য করেছেন আদালত। বুধবার শুনানি শেষে বিচারপতি মো. মঈনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের ভার্চুয়াল হাইকোর্ট বেঞ্চ এ দিন ধার্য করেন।

আদালতে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান, হাজী সেলিমের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী আবদুল বাসেত মজুমদার ও আইনজীবী সাঈদ আহমেদ রাজা। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল তামান্না ফেরদৌস। গত ৩১ জানুয়ারি এ শুনানি শুরু হয়েছিল।

অবৈধভাবে সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ২০০৭ সালের ২৪ অক্টোবর হাজী সেলিমের বিরুদ্ধে লালবাগ থানায় মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এ মামলায় ২০০৮ সালের ২৭ এপ্রিল এক রায়ে ১৩ বছরের কারাদণ্ড দেন নিম্ন আদালত।

এ রায়ের বিরুদ্ধে ২০০৯ সালের ২৫ অক্টোবর হাইকোর্টে আপিল করেন হাজী সেলিম। ২০১১ সালের ২ জানুয়ারি হাইকোর্ট এক রায়ে হাজী সেলিমের সাজা বাতিল করে তাকে খালাস দেন। এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আপিল করে দুদক।

আপিল বিভাগ ২০১৫ সালের ১২ জানুয়ারি এক আদেশে হাইকোর্টের রায় বাতিল করেন এবং পুনরায় হাইকোর্টে শুনানির নির্দেশ দেন। এরপর প্রায় পাঁচ বছর ওই আপিলের আর পুনঃশুনানি হয়নি। এ মামলায় হাজী সেলিম জামিনে আছেন।

গত বছর নৌবাহিনীর এক কর্মকর্তাকে মারধর করার ঘটনাকে কেন্দ্র করে হাজী সেলিমের ছেলে ইরফান সেলিমকে গ্রেফতার করা হয়। এরপরই হাজী সেলিমের মামলার বিষয়ে দুদকের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। এ অবস্থায় দুদক হাজী সেলিমের আপিলের ওপর শুনানির উদ্যোগ নেয়।