সাবেক এমপি আউয়াল ও তার স্ত্রীর সম্পদ ক্রোকের নির্দেশ: দুদক

ঢাকা, সোমবার, ১ মার্চ ২০২১ | ১৬ ফাল্গুন ১৪২৭

সাবেক এমপি আউয়াল ও তার স্ত্রীর সম্পদ ক্রোকের নির্দেশ: দুদক

নিজস্ব প্রতিবেদক ৪:৫১ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৭, ২০২১

print
সাবেক এমপি আউয়াল ও তার স্ত্রীর সম্পদ ক্রোকের নির্দেশ: দুদক

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) মামলায় পিরোজপুর-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য (এমপি) এ কে এম আউয়াল ও তার স্ত্রী লায়লা পারভীনের স্থাবর, অস্থাবর সম্পত্তি ও ব‌্যাংক হিসাব ক্রোকের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। আজ ১৭ জানুয়ারী, রোববার ঢাকা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ কে এম ইমরুল কায়েশ এই আদেশ দেন।

দুদকের পরিদর্শক আমিনুল ইসলাম বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন। গত বছরের ৩০ সেপ্টেম্বর দুদকের ঢাকা সমন্বিত জেলা কার্যালয়-১ এ সংস্থাটির উপপরিচালক আলী আকবর বাদী হয়ে মামলা দুটি দায়ের করেন। মামলা দুটিতে এমপি আউয়ালের বিরুদ্ধে ৩৩ কোটি ২৭ লাখ ৮৯ হাজার ৭৫৫ টাকা এবং তার স্ত্রী লায়লা পারভীনের বিরুদ্ধে ১০ কোটি ৯৮ লাখ ৯০ হাজার ৫০ টাকা অবৈধ সম্পদের কথা উল্লেখ করা হয়।

প্রথম মামলার অভিযোগে বলা হয়, সাবেক এমপি আউয়াল অবৈধভাবে ৩৩ কোটি ২৭ লাখ ৮৯ হাজার ৭৫৫ টাকার সম্পদের মালিক হয়েছেন। তবে তিনি দুদকে দাখিল করা সম্পদের বিবরণীতে ১৫ কোটি ৭২ লাখ ৪৮ হাজার ৪৩ টাকার সম্পদের তথ্য গোপন করেছেন। দ্বিতীয় মামলার অভিযোগে বলা হয়, তার স্ত্রী লায়লা পারভীনের বিরুদ্ধে ১০ কোটি ৯৮ লাখ ৯০ হাজার ৫০ টাকার অবৈধ সম্পদের মালিকানার তথ্য রয়েছে।

এ কে এম এ আউয়াল ২০০৮ ও ২০১৪ সালে পরপর দুইবার পিরোজপুর-১ আসন থেকে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

সাবেক এমপি আউয়ালের বিরুদ্ধে গত বছরের ৩০ ডিসেম্বর দুদকের উপপরিচালক পরিচালক মো. আলী আকবর দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয় বরিশালে আরো তিনটি মামলা দায়ের করেন। তিনটিতে এবং একটিতে তার স্ত্রী লায়লা পারভীনকেও আসামি করা হয়।