৭ জেলেকে অপহরণ করেছিল ৫ রোহিঙ্গা ডাকাত

ঢাকা, বুধবার, ২ ডিসেম্বর ২০২০ | ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

৭ জেলেকে অপহরণ করেছিল ৫ রোহিঙ্গা ডাকাত

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক ৫:১৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ১২, ২০২০

print
৭ জেলেকে অপহরণ করেছিল ৫ রোহিঙ্গা ডাকাত

বঙ্গোপসাগরে অভিযান চালিয়ে অস্ত্রসহ পাঁচ ডাকাত সদস্য আটক এবং সাতজন জেলেকে উদ্ধার করেছে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড। রোববার দিবাগত রাত ৩ ঘটিকায় কোস্ট গার্ড স্টেশান টেকনাফ নিয়মিত টহলে থাকাকালীন টেকনাফ থানাধীন নোয়াখালীপাড়া হতে ১২ নটিক্যাল মাইল দূরে সমুদ্র থেকে অস্ত্রধারী ডাকাতদের আটক এবং তাদের নৌকা হতে সাত জন বাংলাদেশী জেলেকে বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

মিডিয়া কর্মকর্তা  লে. কমান্ডার বিএন এম হায়াত ইবনে সিদ্দিক স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সোমবার এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, ডাকাতদের নৌকাটি তল্লাশী করে দুইটি দেশীয় একনলা বন্দুক, আট  রাউন্ডস কার্তুজ, ১০টি বিভিন্ন ধরনের বার্মিজ ধারালো অস্ত্র ও একটি ইঞ্জিন চালিত কাঠের নৌকা জব্দ করা হয়।

আটককৃত ডাকাতরা হলেন- মো. বাকগুল্লা (২২),  মো. শুকুর (২০), রবি আলম (২২), নুরুল আমিন (৩০) ও শফি আলম (২০)। এরা সকলেই মায়ানমারের আকিয়াব জেলার আড়িপাড়া অঞ্চলের বাসিন্দা।

পরবর্তীতে উক্ত অভিযানে উদ্ধারকৃত বাংলাদেশী জেলেদের ডুবে যাওয়া একটি নৌকা উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত জেলেরা সকলেই টেকনাফের নোয়াখালীপাড়ার বাসিন্দা। আটককৃত ডাকাত, উদ্ধারকৃত জেলে এবং  জব্দকৃত অস্ত্র ও অন্যান্য মালামাল পরবর্তী কার্যক্রমের জন্য টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড এর আওতাভুক্ত এলাকাসমূহে আইন শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রন, জননিরাপত্তার পাশাপাশি বনদস্যুতা, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন ও ডাকাতি দমন রোধে কোস্ট গার্ডের জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করে, নিয়মিত অভিযান অব্যাহত আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।।