সাগর-রুনি হত্যা প্রতিবেদন দাখিল পেছাল ৭৩ বার

ঢাকা, শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ১০ আশ্বিন ১৪২৭

সাগর-রুনি হত্যা প্রতিবেদন দাখিল পেছাল ৭৩ বার

নিজস্ব প্রতিবেদক ৬:৫১ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ১৪, ২০২০

print
সাগর-রুনি হত্যা প্রতিবেদন দাখিল পেছাল ৭৩ বার

সাংবাদিক দম্পতি সাগর সারোয়ার ও মেহেরুন রুনি হত্যা মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের দিন পিছিয়ে আগামী আগামী ৮ সেপ্টেম্বর দিন ধার্য করেছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার এ মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ধার্য ছিল। কিন্তু এদিন মামলার তদন্ত সংস্থা র‌্যাব কোনো প্রতিবেদন দাখিল করেনি। এজন্য ঢাকা মহানগর হাকিম শাহিদুল ইসলাম প্রতিবেদন দাখিলের জন্য নতুন এ দিন ধার্য করেন। এ নিয়ে ৭৩ বার প্রতিবেদন দাখিলের তারিখ পেছানো হলো।

২০১২ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি রাতে রাজধানীর পশ্চিম রাজাবাজারের ভাড়া বাসায় নির্মমভাবে খুন হন মাছরাঙা টেলিভিশনের বার্তা সম্পাদক সাগর সরওয়ার এবং এটিএন বাংলার জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক মেহেরুন রুনি।

দুজনকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়। নৃশংস ওই হত্যাকা-ের সময় বাসায় ছিল সাংবাদিক দম্পতির একমাত্র সন্তান মিহির সরোয়ার মেঘ। ওই সময়ে তার বয়স ছিল সাড়ে চার বছর। সাংবাদিক দম্পতি খুন হওয়ার পর দেশজুড়ে আলোড়ন সৃষ্টি হয়।

বিচার চেয়ে আন্দোলনে নামে সাংবাদিক সংগঠনগুলো। হত্যারহস্য উদ্ঘাটন, খুনি ধরা থেকে বিচার-বিভিন্ন সময়ে আশার বাণী শুনলেও দীর্ঘ সময়ে শুধু তদন্ত সংস্থা আর তদন্ত কর্মকর্তাই বদল হয়েছে। রহস্য আর উদ্ঘাটন হচ্ছে না। থানা পুলিশ, ডিবি হয়ে আদালতের নির্দেশে র‌্যাব এখন মামলাটির তদন্ত করছে। এ ঘটনার পর রুনির ভাই নওশের আলম রোমান শেরেবাংলা নগর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

প্রথমে মামলাটি শেরেবাংলা নগর থানার মাধ্যমে তদন্ত শুরু হয়। এরপর চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলা হিসেবে এর তদন্ত ভার মহানগর ডিবি পুলিশকে দেওয়া হয়। দুই মাসেরও বেশি সময় তদন্ত করে ডিবি রহস্য উদ্ঘাটনে ব্যর্থ হয়। পরে ২০১৪ সালের ১৮ এপ্রিল হাইকোর্টের নির্দেশে হত্যা মামলাটির তদন্তভার র‌্যাবের ওপর ন্যস্ত করা হয়।