সম্রাটের দুই মামলায় চার্জশিট গ্রহণ ১০ ফেব্রুয়ারি

ঢাকা, রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

সম্রাটের দুই মামলায় চার্জশিট গ্রহণ ১০ ফেব্রুয়ারি

নিজস্ব প্রতিবেদক
🕐 ৪:১০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ০৮, ২০২০

সম্রাটের দুই মামলায় চার্জশিট গ্রহণ ১০ ফেব্রুয়ারি

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটের বিরুদ্ধে র‌্যাবের করা অস্ত্র ও মাদক আইনের মামলায় চার্জশিট গ্রহণের তারিখ ১০ ফেব্রুয়ারি ধার্য করেছেন আদালত। মাদক মামলায় সম্রাটের পাশাপাশি তার সহযোগী যুবলীগ দক্ষিণের বহিষ্কৃত সহ-সভাপতি এনামুল হক আরমানও আসামি।

বুধবার এ দুটি মামলায় চার্জশিট গ্রহণের দিন ধার্য ছিল। কিন্তু এদিন সম্রাট অসুস্থ থাকায় তাকে আদালতে হাজির করেনি কারা কর্তৃপক্ষ।

এজন্য ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশ আসামির উপস্থিতিতে চার্জশিট গ্রহণের নতুন তারিখ ধার্য করেন। আদালত সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

গত বছর ৬ নভেম্বর অস্ত্র আইনের মামলায় সম্রাটের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট জমা দেন তদন্ত কর্মকর্তা র‌্যাব-১ এর উপ-পরিদর্শক শেখর চন্দ্র মল্লিক। ৯ ডিসেম্বর মাদক মামলায় সম্রাট এবং আরমানের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা র‌্যাব-১ এর এসআই আ. হালিম।

গত বছর ৬ অক্টোবর ভোরে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম থেকে সম্রাট ও তার সহযোগী এনামুল হক আরমানকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। পরে তাকে নিয়ে দুপুর দেড়টার দিকে তার কাকরাইলের কার্যালয়ে অভিযান চালানো হয়। এ সময় ভেতর থেকে বিপুল পরিমাণ বিদেশি মদ, পিস্তল ও বিরল প্রজাতির বন্য প্রাণীর চামড়া উদ্ধার করা হয়। বন্য প্রাণীর চামড়া রাখার দায়ে তাকে ছয় মাসের কারাদণ্ড দেন আদালত। ওই দিনই রাত পৌনে ৯টার দিকে সম্রাটকে কারাগারে নেয়া হয়।

৭ অক্টোবর বিকেলে র‌্যাব-১ এর ডিএডি আব্দুল খালেক বাদী হয়ে রমনা থানায় দুটি মামলা করেন। এর মধ্যে অস্ত্র মামলায় সম্রাটকে একমাত্র আসামি করা হয়। মাদক মামলায় সম্রাট এবং আরমানকে আসামি করা হয়।

গত ১৫ অক্টোবর সম্রাটের মাদক মামলায় পাঁচ দিন এবং অস্ত্র আইনের মামলায় পাঁচ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। সম্রাটের সাথে ওই দিন মাদক মামলায় আরমানের ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

এরপর গত ১৭ নভেম্বর দুর্নীতির মামলায় সম্রাট এবং আরমানের ৬ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। বর্তমানে তারা কারাগারে আছেন।

 
Electronic Paper