স্ত্রীর ডেঙ্গু, মেয়রের কাছে ক্ষতিপূরণ চেয়ে স্বামীর লিগ্যাল নোটিশ

ঢাকা, শনিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৯ | ৩ কার্তিক ১৪২৬

স্ত্রীর ডেঙ্গু, মেয়রের কাছে ক্ষতিপূরণ চেয়ে স্বামীর লিগ্যাল নোটিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক ২:৪৯ অপরাহ্ণ, জুলাই ১১, ২০১৯

print
স্ত্রীর ডেঙ্গু, মেয়রের কাছে ক্ষতিপূরণ চেয়ে স্বামীর লিগ্যাল নোটিশ

স্ত্রী ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হওয়ায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) কাছে ৫০ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে সংস্থার মেয়র ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাকে আইনি (লিগ্যাল) নোটিশ পাঠিয়েছেন সুপ্রিমকোর্টের এক আইনজীবী। বৃহস্পতিবার সকালে রেজিস্ট্রি ডাকযোগে সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী তানজিম আল ইসলাম এ নোটিশ পাঠান।

নোটিশে ওই আইনজীবী উল্লেখ করেন, গত ২৯ জুন আমার স্ত্রী ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন এবং পাঁচ দিন হাসপাতালে থেকে আংশিক সুস্থতা লাভ করেন। যেহেতু এডিস মশা নিধনে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন পুরোপুরি ব্যর্থ, তাই এর দায়ভার তাদের নিতে হবে। ক্ষতিপূরণের পাশাপাশি আগামী তিন দিনের মধ্যে খিলগাঁও এক নম্বর ওয়ার্ডে মশক নিধনে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে। তা না হলে আইন অনুযায়ী ক্ষতিপূরণ ও প্রতিকার চেয়ে রিট করা হবে বলে নোটিশে উল্লেখ করা হয়।

রাজধানী ঢাকায় ডেঙ্গুর প্রকোপ বেড়েই চলেছে। পরিস্থিতি প্রতিদিনই খারাপের দিকে যাচ্ছে। এতে করে প্রতিদিন রাজধানীর বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতাল এবং ক্লিনিকে ভর্তি ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। রাজধানীর বাইরেও ছড়িয়ে পড়ছে ভাইরাসজনিত ডেঙ্গু জ্বর।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আবহাওয়ার তাপমাত্রা বেশি থাকলে ডেঙ্গুবাহী এডিস মশার প্রজনন বেশি হচ্ছে আর বৃষ্টি হলে স্বচ্ছ পানিতে এডিস মশার বংশ বৃদ্ধির ঝুঁকি বাড়ছে। তাই জ্বর হলে দ্রুত চিকিৎসকের শরণাপন্ন হওয়ার পরামর্শ দেন তারা।

এদিকে রাজধানীতে এডিস মশাবাহিত ডেঙ্গুর প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় গত ৮ দিনেই প্রায় এক হাজারের মতো আক্রান্ত হয়ে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। পরিস্থিতি এমন হয়েছে, সবার মধ্যে ডেঙ্গু আতঙ্ক বিরাজ করছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, গত ১ থেকে ৮ জুলাই পর্যন্ত ৯৭৯ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। হিসাব অনুযায়ী চলতি মাসে প্রতিদিন গড়ে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছেন ১২২ জন অর্থাৎ প্রতি ১২ মিনিটে একজন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছেন। গত ৮ দিনে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রোগীর মধ্যে ১ জুলাই ১১৩, ২ জুলাই ১১৫, ৩ জুলাই ১১৫, ৪ জুলাই ১৩৬, ৫ জুলাই ৯৫, ৬ জুলাই ১৬৪, ৭ জুলাই ১২০ এবং ৮ জুলাই ১২১ জন ভর্তি হন। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ১২১ জন। গত ৮ দিনের তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, প্রতি ১২ মিনিটে একজন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছেন।