‘খাদ্যে ভেজাল মেশানো একটি বড় দুর্নীতি’

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯ | ৬ ভাদ্র ১৪২৬

‘খাদ্যে ভেজাল মেশানো একটি বড় দুর্নীতি’

নিজস্ব প্রতিবেদক ৩:২৯ অপরাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১৯

print
‘খাদ্যে ভেজাল মেশানো একটি বড় দুর্নীতি’

খাদ্যে ভেজাল মোশানোর মত অপরাধকে একটি বড় দুর্নীতি বলে মন্তব্য করেছেন হাইকোর্ট। খাদ্যে ভেজাল মেশানোর কারণে মানুষের কিডনি ও লিভার নষ্ট হওয়া এমনকি এর জন্য ক্যানসার হচ্ছে বলেও উদ্বেগ প্রকাশ করেন আদালত।

দুধ ও দুগ্ধজাত পণ্যে ভেজাল বিষয়ে কয়েকটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদন আইনজীবী মামুন মাহবুব আদালতের নজরে আনলে সোমবার (১১ ফেব্রুয়ারি) বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি এ কে এম হাফিজুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ মন্তব্য করেন।

ওই প্রতিবেদনের ওপর শুনানিকালে আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক।

এ সময় আদালত বলেন, ‘খাদ্যে ভেজাল মেশানো একটি বড় দুর্নীতি। এ ধরনের ভেজালে মানুষের কিডনি ও লিভার নষ্ট হচ্ছে, ক্যানসার হচ্ছে। মানুষ এখন শুধু টাকার পেছনে ঘুরছে। দেশ ও দেশের মানুষ নিয়ে কেউ ভাবছেন না।’

এ শুনানি শেষে ঢাকাসহ সারা দেশের বাজারে কোন কোন কোম্পানির দুধ ও দুগ্ধজাত খাদ্য পণ্যে কী পরিমাণ ব্যাকটেরিয়া, কীটনাশক এবং সিসা মেশানো রয়েছে, তা নিরূপণ করে একটি জরিপ প্রতিবেদন তৈরির নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। সেইসঙ্গে জাতীয় নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্টদের আগামী ১৫ দিনের মধ্যে এ নির্দেশ বাস্তবায়ন করতে বলা হয়।

এ মামলার পরবর্তী শুনানির জন্য আগামী ৩ মার্চ দিন নির্ধারণ করা হয়েছে।