কুমারখালীতে পদ্মায় দুটি নৌকাডুবি, নিখোঁজ ৪

ঢাকা, শুক্রবার, ১৪ আগস্ট ২০২০ | ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭

কুমারখালীতে পদ্মায় দুটি নৌকাডুবি, নিখোঁজ ৪

মিজানুর রহমান নয়ন, কুমারখালী, কুষ্টিয়া ১০:৩০ অপরাহ্ণ, জুলাই ০৭, ২০২০

print
কুমারখালীতে পদ্মায় দুটি নৌকাডুবি, নিখোঁজ ৪

কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলায় পদ্মা নদীতে দুইটি ডিঙি নৌকা ডুবিতে চারজন নিখোঁজের খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় নয়জনকে অসুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করেছে স্থানীয়রা। গতকাল মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার সাদিপুর ইউনিয়নের ঘোষপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিখোঁজ ব্যক্তিরা হলেন, জেলার ভেড়ামারা উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের জামালপুর গ্রামের হারান শেখের ছেলে জুয়েল (৩০), একই গ্রামের নজুর ছেলে জাকির (২৫), জলিলের ছেলে শরিফুল (৩১) ও রঞ্জিতের ছেলে জুবা (৩২)। এরা সবাই পেশায় দিনমজুর। জানা গেছে, ওই ১৩ জন দিনমজুর জেলার ভেড়ামারা উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের জামালপুর থেকে ইঞ্জিনচালিত করিমন যোগে কুমারখালীর ঘোষপুর এসে দুইটি ডিঙি নৌকায় করে পদ্মা নদীর চরে উলু ঘাস কাঁটাতে যাচ্ছিলেন। একটি নৌকায় ছিলেন নয়জন ও অপর নৌকায় চারজন। নদীর তীর থেকে একটু দূরে যেতেই প্রবল স্রোতে নৌকা দুটি ডুবে যায়। এরপর নয়জন সাঁতার দিয়ে নদীর কূলে এসে অসুস্থ হয়ে পড়লে স্থানীয়রা উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়। বাকি চারজন এখনও নিখোঁজ রয়েছেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সাদিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তোফাজ্জেল হোসেন বলেন, মঙ্গলবার সকালে পদ্মা নদীতে প্রবল স্রোতের মুখে পড়ে দুইটি ডিঙি নৌকা ডুবে যায়। এ ঘটনায় নয়জন সাঁতরে তীরে আসলে তাদের উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এখন পর্যন্ত চারজন নিখোঁজ রয়েছে। এরা সবাই ভেড়ামারা উপজেলার জামালপুর গ্রামের বাসিন্দা।

তিনি আরও জানান, নিখোঁজ ব্যক্তিদের উদ্ধারের জন্য ফায়ার সার্ভিসে খবর দেওয়া হলে তারা এসে উদ্ধার তৎপরতা শুরু করেছেন।

এ বিষয়ে কুমারখালী ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা অমিয় কুমার বিশ্বাস জানান, সাদিপুর একটি রিমোর্ট এলাকা হওয়ায় ঘটনাস্থলে পৌঁছাতে সময় লেগেছে। এখন উদ্ধার কাজ অব্যাহত রয়েছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাজীবুল ইসলাম খান বলেন, নিখোঁজদের উদ্ধারের চেষ্টা চলছে। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা অভিযান অব্যাহত রেখেছেন।