বয়লার বিস্ফোরণে আহত ৪ জনই মারা গেলেন

ঢাকা, রবিবার, ২ অক্টোবর ২০২২ | ১৭ আশ্বিন ১৪২৯

Khola Kagoj BD
Khule Dey Apnar chokh

বয়লার বিস্ফোরণে আহত ৪ জনই মারা গেলেন

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি
🕐 ৬:৫৬ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ০২, ২০১৯

বয়লার বিস্ফোরণে আহত ৪ জনই মারা গেলেন

একে একে মৃত্যুর কাছে হার মানলেন কুষ্টিয়ায় উডল্যান্ড প্লাইউড কারখানায় অগ্নিদগ্ধ চার শ্রমিক। নয় দিন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে হেরে গেলেন সাজেদুল ইসলাম (২২) নামে অগ্নিদগ্ধ হয়ে আহত চার শ্রমিকের শেষজন।

২২ নভেম্বর (শুক্রবার) থেকে ০১ ডিসেম্বর পর্যন্ত একে একে তারা মৃত্যুবরণ করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায়।

নিহতরা হলেন- কুষ্টিয়া সদর উপজেলার জুগিয়া বারখাদা এলাকার মতিয়ারের ছেলে সাজেদুল ইসলাম (২২), একই এলাকার আব্বাস আলীর ছেলে মেহেদী হাসান (১৭), জুগিয়া উত্তরপাড়া এলাকার উমর আলীর ছেলে চান্নু মিয়া (১৮) ও লাহিনীপাড়া এলাকার রায়হান আলী (১৮)।

জানা যায়, শুক্রবার (২২ নভেম্বর) ভোর রাতে কুষ্টিয়ায় উডল্যান্ড প্লাইউড কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এতে কারখনায় কর্মরত ৪ শ্রমিক অগ্নিদগ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হয়। পরে তাদের উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসক তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন। সেখানকার বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন ছিলেন ৪ শ্রমিক।

ঢামেকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঘটনার দু’দিন পর রোববার (২৪ নভেম্বর) মারা যান শ্রমিক চান্নু মিয়া, মঙ্গলবার (২৬ নভেম্বর) মারা যান মেহেদী হাসান, বুধবার (২৭ নভেম্বর) মারা যান রায়হান আলী, সর্বশেষ রোববার (০১ ডিসেম্বর) মারা গেলেন সাজেদুল ইসলাম।

কুষ্টিয়া ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার আলী সাজ্জাদ বলেন, ডাস্ট কালেক্টর সেকশন থেকে আগুনের সূত্রপাত হওয়ায় তা নেভাতে আমাদের বেগ পেতে হয়েছে। শর্ট সার্কিটের কারণে আগুনের সূত্রপাত বলে ফায়ার সার্ভিসকে জানানো হয়েছিল কোম্পানিটির পক্ষ থেকে। তবে শর্ট সার্কিট নয় আসলে বয়লার বিস্ফোরণের ফলে আগুন লাগে।

নিহত শ্রমিকদের ক্ষতিপূরণ বিষয়ে জানতে চাইলে কুষ্টিয়া উডল্যান্ড প্লাইউড কারখানার কর্মকর্তারা কথা বলতে রাজি হননি।

 
Electronic Paper