এমপিওর খবরে সিঙ্গাপুর থেকে ফিরলেন শিক্ষক

ঢাকা, শনিবার, ৭ ডিসেম্বর ২০১৯ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

এমপিওর খবরে সিঙ্গাপুর থেকে ফিরলেন শিক্ষক

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি ১১:৩৯ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ১৭, ২০১৯

print
এমপিওর খবরে সিঙ্গাপুর থেকে ফিরলেন শিক্ষক

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার কাদিরকোল আদর্শ দাখিল মাদ্রাসা ২০০৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রথমে তিনজন শিক্ষক দিয়ে ইবতেদায়ী পাঠদান শুরু হয় মাদ্রাসাটিতে। এরপর ছাত্রছাত্রীর ভর্তির সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় পর্যায়ক্রমে বিনা পারিশ্রমিকে নিয়োগ দেওয়া হয় ১৭ জন শিক্ষক ও কর্মচারী।

সবাই আশায় ছিলেন একদিন এমপিওভুক্ত হবে, তারা পরিবার-পরিজন নিয়ে সুখে শান্তিতে বসবাস করবেন।

প্রতিষ্ঠানটি এমপিওভুক্ত হয়েছে। কিন্তু এরমধ্যে মাদ্রাসা সুপার রেজাউল ইসলামের মিথ্যা আশ্বাসে কপাল পুড়েছে গণিত বিষয়ের শিক্ষক মনোয়ার হোসেনের।

এদিকে মাদ্রাসা এমপিওভুক্তির খবর পেয়ে সিঙ্গাপুর থেকে এসে প্রতিষ্ঠানে যোগদান করেছে মো. মোমিনুর রহমান।

দীর্ঘদিন সিঙ্গাপুরে থাকা শারীরিক শিক্ষা বিষয়ের শিক্ষক মো. মোমিনুর রহমান বলেন, আমি ২০০৪ সালে প্রথম যোগদান করি। এরপর এমপিওভুক্ত না হওয়ায় ২০১৮ সালে সিঙ্গাপুর চলে যাই। গত ২৩ তারিখে মাদ্রাসাটি এমপিওভুক্ত হওয়ার পর গত ২ তারিখে এসে ক্লাস নিতে শুরু করি।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এক বছর আমার পক্ষে আমার ছোট ভাই বিদ্যালয়ে ক্লাস নিতেন।

এ ব্যাপারে কাদিরকোল আদর্শ দাখিল মাদ্রাসার সুপার রেজাউল ইসলাম বলেন, প্রতিষ্ঠানটি ননএমপিও থাকায় শারীরিক শিক্ষা বিষয়ের শিক্ষক মোমিনুর রহমান সিঙ্গাপুর চলে যায়। তার ছোট ভাই মিজানুর রহমান বিদ্যালয়ে ক্লাস নিতেন।

গণিত বিষয়ের শিক্ষকের নিবন্ধন না থাকা সত্ত্বেও আপনি নিয়োগ দিলেন কীভাবে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, নিবন্ধন হইলে তাকে প্রতিষ্ঠানে রাখা সম্ভব হতো।

কালীগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মধুসূদন সাহা বলেন, নিবন্ধন শুরু হয়েছে ২০০৫ সাল থেকে। এরপর থেকে নিবন্ধন ছাড়া কাউকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নেওয়া যাবে না।