যবিপ্রবি ভিসির আত্তিকর মন্তব্যে ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা

ঢাকা, রবিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৯ | ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

যবিপ্রবি ভিসির আত্তিকর মন্তব্যে ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা

যশোর প্রতিনিধি ১২:২২ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ০৭, ২০১৯

print
যবিপ্রবি ভিসির আত্তিকর মন্তব্যে ক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. আনোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে ছাত্রীদের ব্যক্তিগত বিষয়ে হস্তক্ষেপ করার অভিযোগ উঠেছে। গত সোমবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়টির শেখ হাসিনা হলে গিয়ে ডাইনিংয়ের খাবার মান নিয়ে প্রশ্ন তোলা শিক্ষার্থীদের হল ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশ দিয়ে ভিসি বলেন, ‘সুযোগ-সুবিধায় যদি না পোষায় সব হল ছেড়ে দাও। জামাইদের জন্য রান্না কর হ্যা? এইখানে কি এইসব করতে আইছো তোমরা? এসব কি তোমাদের আব্বা মাকে জানাবো? বলবো, দেখে যান আপনার পোলামাইয়ারা কি করতেছে!’

যবিপ্রবি সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে বিশ্ববিদ্যালয়টির ডাইনিংয়ের খাবারের মান নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন শিক্ষার্থীরা। তবে প্রশাসনের পক্ষ থেকে এর কোনো সমাধান করা হয়নি। বাধ্য হয়ে শিক্ষার্থীরা নিজেরাই মাঝে মধ্যে রান্না করে খেতেন। কিন্তু গত ২৬ অক্টোবর প্রশাসন হলে অভিযান চালিয়ে রাইচ কুকারসহ রান্নার সরঞ্জাম নিয়ে যায়। 

এরপর শিক্ষার্থীরা ফেসবুকে তাদের দাবি নিয়ে স্ট্যাটাস দেন। এতে ক্ষিপ্ত হন ভিসি। ওই হলের একাধিক শিক্ষার্থী জানিয়েছেন, ২৭ অক্টোবর থেকে তাদের পরীক্ষা শুরু হয়েছে। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়ের ডাইনিংয়ে যে খাবার দেওয়া হয়, তা খেয়ে স্বাভাবিক জীবনযাপন সম্ভব নয়। তাই তারা মাঝে মধ্যে রান্না করে খেতেন।

কিন্তু পরীক্ষার আগের দিন সেই ব্যবস্থাও বন্ধ করে দিয়েছে প্রশাসন। এতে পরীক্ষার সময় খাবার খাওয়া নিয়ে চরম ভোগান্তিতে পড়েন ছাত্রীরা। এজন্য অনেকেই ক্ষুদ্ধ। এনিয়ে কেউ কেউ ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন। যা দেখে গত সোমবার দুপুরে হলে আসেন ভিসি। তৃতীয় বর্ষের এক ছাত্রী বলেন, ‘ভিসি একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের অভিভাবক। দিনের পর দিন আমরা না খেয়ে থাকছি। আমাদের সমস্যার কথা তাকে জানিয়েছি। কিন্তু তিনি তার কোন সমাধান না করে হলে এসে ছাত্রীদের রীতিমতো হুমকি দিয়ে গেছেন। একজন ভিসি কিভাবে এই কথা বলতে পারেন?’

শিক্ষার্থীরা বলছেন, ‘হলের চলমান সমস্যা নিয়ে শিক্ষার্থীদের করা যৌক্তিক পোস্টগুলো ডিলিট করতে বাধ্য করা হয়েছে। মামলা করারও হুমকি দিচ্ছে।’